কল ফরওয়ার্ড চালু এবং বন্ধ করার নিয়ম – সহজ উপায়

মোবাইলের কল সেটিংস অপশনে গেলে আমরা কল ফরওয়ার্ড নামের একটি অপশন দেখতে পাই। এই অপশনটি কি কাজের এবং কল ফরওয়ার্ড চালু রাখলে বা বন্ধ করলে কি সুবিধা পাব তা অনেকে জানিনা। কল ফরওয়ার্ড বন্ধ বা চালু করার নিয়ম জানার পূর্বে চলুন জেনে নেই কল ফরওয়ার্ড মূলত কি?

কল ফরওয়ার্ড কি

বিভিন্ন প্রয়োজনে কল ফরওয়ার্ড চালু করতে হয় আবার প্রয়োজন শেষে বন্ধ করে দিতে হয়। কল ফরওয়ার্ড হচ্ছে এমন একটি ব্যবস্থা যেখানে আপনি কথা বলার সময় ব্যস্ত থাকলে, কল রিসিভ না করলে বা সিম বন্ধ থাকলে আপনার সিলেক্ট করা অন্য একটি নাম্বারে কল ট্রান্সফার করে দেওয়া হবে। অর্থাৎ সহজ ভাষায় এক সিমের কল অন্য সিমে নেওয়ার পদ্ধতি হচ্ছে কল ফরওয়ার্ড বা ডাইভার্ট করা।

আপনি হয়তো কখনো খেয়াল করেছেন অথবা কখনো এরকম পরিস্থিতিতে পরেছেন যে, আপনার মোবাইল নাম্বারে কল আসলে সেই কল অন্য কোন নাম্বারে চলে যায়। কেউ হয়তো এরকমটি করে রেখেছে। ভাবতেই পারেন সে আপনার থেকে অনেক চালাক বা আপনাকে ফাসাতে বা আপনাকে চমকে দেয়ার জন্যই এই কাজটি করেছে।

কল ফরওয়ার্ড চালু করবেন যেভাবে

কল ফরওয়ার্ড অপশনটি চালু করতে হলে প্রথমে  মোবাইলের ডায়ালপ্যাড ওপেন করুন। তারপর সেখানে লিখুন *২১*যেই নাম্বারে কল ফরওয়ার্ড করতে চান সেই নাম্বার# তারপর যেই সিম দিয়ে আপনি কল রিসিভ করতে চান অবশ্যই সেই সিম দিয়ে কোডটি ডায়াল করবেন।

উদাহরণস্বরূপ- *21*01818888888#

যেকোনো সিমে একই পদ্ধতিতে কল ফরওয়ার্ড করতে পারবেন। তবে কিছু কিছু সিমে কল ফরওয়ার্ড করার জন্য চার্জ কাটে আবার কোনো কোনো সিমে এটা সম্পূর্ণ ফ্রি। তবে আপনি আপনার সিমের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে কল করে এ ব্যাপারে জেনে নিতে পারেন।

তাছাড়া আপনি মোবাইলের সেটিংস অপশনে গিয়ে কল ফরওয়ার্ড চালু করতে পারেন। প্রথমে আপনি আপনার মোবাইলের সেটিংসে যান। তারপর সেখানে কল সেটিংস (Call settings) নামের একটি অপশন পাবেন সেখানে ক্লিক করুন।

এরপর কল ডাইভার্ট (call divert) নামের একটি অপশন পাবেন। তারপর সেখানে আপনি কোন সিমে কল ডাইভার্ট করতে চান সেই সিমের নম্বর দিয়ে কল ফরওয়ার্ড এক্টিভেট করতে পারেন। একইভাবে আবার কল ফরওয়ার্ড ডিএক্টিভেট করতে পারবেন।

কল ফরওয়ার্ড বন্ধ করবেন যেভাবে

কল ফরওয়ার্ড একেবারে সহজ উপায়ে বন্ধ করতে পারবেন। তার জন্য প্রথমে আপনার মোবাইলের ডায়াল পেডে গিয়ে *#২১# ডায়াল করে দিলেই কল ফরওয়ার্ড বন্ধ হয়ে যাবে। তবে এই কোডটি ঐ সিমেই ডায়াল করবেন যে সিমে কল আসলে অন্য নাম্বারে কল চলে যায়।

ডায়াল করার পর আপনি দেখতে পাবেন আপনার কোন কোন সার্ভিস গুলো ফরওয়ার্ড হচ্ছে। এবং Call Forwarding Disable লেখাটি আসলে বুঝতে পারবেন যে সার্ভিসটি ডিজেবল হয়ে গেছে।

যদি আপনার মোবাইলে এই কোডটি কাজ না করে তাহলে *#৬২# ডায়াল করে দেখতে পারেন কল ফরওয়ার্ড বন্ধ করতে পারেন। যদি ফোনে তাতেও কাজ না করবে তাহলে ##০০২# ডায়াল করে দেখতে পারেন। উপরে বর্ণিত নিয়মগুলো ফলো করে খুব সহজে আপনি কল ফরওয়ার্ড চালু এবং বন্ধ করতে পারবেন।

কল ফরওয়ার্ড কেন করবেন

মনে করেন আপনার একটি সিম বন্ধ অথবা একটি সিমে সব জায়গায় নেটওয়ার্ক পাওয়া যায় না তখন আপনি চিন্তা করলেন ওই সিমের যদি কেউ ফোন দেয় সেটি যেন আপনার ব্যবহৃত ভালো সিমে আসে এবং আপনি কল রিসিভ করে কথা বলতে পারেন।  এজন্য আপনি কল ফরওয়ার্ড অপশনটি চালু রাখতে পারেন।

আপনার কোনো কাছের মানুষের কোনো বিষয় নিয়ে সন্দেহ হওয়ার পর আপনি তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর কল ফরোয়ার্ডিং করে আপনার নম্বর যোগ করে দিয়েছেন। তাহলে কোনো সন্দেহভাজন ব্যক্তি কল করলে সেটা আপনার কাছে চলে আসবে। এবং আপনি বুঝতে পারবেন কে কল করেছে।

ধরুন আপনার মাধ্যমিক পড়ুয়া সন্তানকে শুধুমাত্র আপনার সাথে কথা বলার জন্য সিম কিনে দিলেন। কিন্তু দেখা যায় সে আরো অনেকের সাথে কথা বলে হারাম সম্পর্কে জড়িয়ে যাচ্ছে। এমন অবস্থায় আপনি আপনার সন্তানের মোবাইলে কল ফরওয়ার্ড অপশন চালু করে রাখলেন, তাকে কেউ কল দিলে যেন আপনার কাছে চলে আসে।

কল ফরওয়ার্ড অপশন চেক করার নিয়ম

আপনি আপনার ফোনে কল ফরওয়ার্ড সিস্টেম চালু করেছেন কিন্তু আপনি শিওর নন সেটা চালু হয়েছে কিনা। এমন অবস্থায় আপনি কি করতে পারেন? আপনি কল ফরওয়ার্ড অপশন চেক করতে পারেন।

তার জন্য আপনার মোবাইলের ডায়ালপেডে গিয়ে ডায়াল করতে হবে *#২১# নম্বরে। তারপর আপনাকে ফিরতি ম্যাসেজে জানিয়ে দিবে কল ফরোয়ার্ড অপশন চালু নাকি বন্ধ। চালু হলে লেখা উঠবে voice forwarded আর বন্ধ থাকলে লেখা উঠবে voice not forwarded.

Call Forwarding-এর সুবিধা

কল ফরওয়ার্ডিং এর বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে। যদি আপনার এলাকায় নেটওয়ার্কের সমস্যা থাকে তাহলে কল ফরওয়ার্ডিং এর মাধ্যমে আপনি এ সমস্যার সমাধান পাবেন।

মাঝেমধ্যে আপনার সিম খোলা তারপর দেখবেন অনেকে এসে বলছে তোমার সিম বন্ধ কেন! আর এটা হওয়ার কারণ হচ্ছে নেটওয়ার্কের সমস্যা।

এ সমস্যা থেকে মুক্তির জন্য কল ফরওয়ার্ডিং (**৬২*মোবাইল নম্বর#) বেস্ট অপশন। মাঝেমধ্যে আপনার মোবাইলে ডাইভার্টেড কল ড্রপও পেতে পারেন কল ফরওয়ার্ডিং করার মাধ্যমে।

Call Forwarding-এর অসুবিধা

অনেক সময় হয়রানি করার জন্য আপনার ফোনে কেউ কল ফরওয়ার্ডিং করে রাখতে পারে। তাই এরকম সন্দেহভাজন কাউকে ফোন দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

আমাদের দেশে কল ফরওয়ার্ড সিস্টেম অনেক সময় সঠিকভাবে কাজ করে না। অনেক সময় সহজে চালু হয় না আবার অনেক সময় বন্ধ করা যায় না।

এ সকল সমস্যার সমাধান পেতে আপনি কাস্টমার কেয়ারে ফোন করতে পারেন।

কল ওয়েটিং ও কল হোল্ডিং কি

মোবাইলের কল সেটিংসে গেলে আপনি অনেক অপশন পাবেন, সেখানে কল ওয়েটিং (call waiting) নামের একটি অপশন পাবেন। এখন অনেকে হয়তো আমরা জানি না কল ওয়েটিং আবার কি? সহজভাবে বললে একটি ফোন কলে কথা বলার সময় আরেকটি কল আসলে সেই কলটি রিসিভ করে কথা বলার সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি হচ্ছে কল ওয়েটিং।

মনে করেন আপনি কারো সাথে কথা বলছেন তখন আপনার ফোনে আরেকটি কল এসেছে। এমন অবস্থায় আপনি কল ওয়েটিং এর মাধ্যমে তা জানতে পারবেন এবং দ্বিতীয় কলটির জন্য একটি রিংটোন শুনতে পাবেন।

তারপর কল হোল্ডিং এর মাধ্যমে একটি কল হোল্ড করে বা ধরে রেখে দ্বিতীয় ইনকামিং কলটি রিসিভ করে কথা বলতে পারবেন অথবা অন্য আরেকটি নাম্বারে আপনি কল করতে পারবেন। তার জন্য আপনাকে প্রথম কলটি কাটতে হবে না, কল হোল্ডিং সুবিধাটির মাধ্যমে আপনি প্রথম কলে কথা বলার সময় অন্য একটি নাম্বারে কল করতে পারবেন। 

কল ওয়েটিং বা হোল্ডিং চালু করার নিয়ম

কল ওয়েটিং বা কল হোল্ডিং সার্ভিসটি চালু করার জন্য প্রথমে আপনার মোবাইলের ডায়াল পেডে গিয়ে লিখুন *৪৩# তারপর ডায়াল করুন। এটি চালু করার জন্য আপনাকে কোনো চার্জ দিতে হবে না।

কল ওয়েটিং বা হোল্ডিং বন্ধ করার নিয়ম

কল ওয়েটিং বা কল হোল্ডিং সার্ভিসটি বন্ধ করার জন্য আপনার মোবাইলের ডায়াল পেডে গিয়ে #৪৩# লিখুন, তারপর ডায়াল করুন। তাছাড়া আপনার মোবাইলে কল ওয়েটিং এবং কল হোল্ডিং সার্ভিসটি চালু অথবা বন্ধ হয়েছে কিনা তা জানতে ডায়াল করুন *#৪৩#

কল ওয়েটিং, কল হোল্ডিং এবং কল ফরওয়ার্ড অপশনগুলো অনেক সময় চালু হয়ে যায়, আর আমরা বুঝতে পারি না। আর অনেকেই এসকল সেটিংস চালু বা বন্ধ করতে হয় কিভাবে তা জানেনা, আর আমাদের এই পোস্টটি ছিল আপনাদের জন্যই।

আশা করি আপনারা এই পোষ্টির মাধ্যমে কল ওয়েটিং, কল হোল্ডিং এবং কল ফরওয়ার্ডিং বুঝতে পেরছেন।

Share your love
Hemal Hasan
Hemal Hasan
Articles: 28