কিভাবে রিভিউ লিখে আয় করা যায়

রিভিউ লিখে আয়

ইন্টারনেটে অনেক গুলো আয়ের মাধ্যমের মধ্যে রিভিউ লিখে আয় ছোট একটি মাধ্যম। এটি খুবই সহজ। আপনি যে কোন কিছুর রিভিউ নিজে থেকেই লিখতে পারেন অথবা নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে লিখতে পারেন অথবা অন্যের রিভিউ পরে সেখান থেকে নিজের মতামত দিতে পারেন।

অনলাইনে যারা ক্যারিয়ার শুরু করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য প্রথমত ছোটখাটো একটি মাধ্যম দরকার হয়। তাদের জন্য শুরুর সূচনা হিসেবে অনলাইনে ছোটখাটো রিভিউ লেখালেখি করে আয়ের মাধ্যমটি খারাপ নয়।

তাহলে চলুন রিভিউ লিখে কিভাবে আয় করবেন তা জেনে নেই।

রিভিউ লেখা কি

রিভিউ লেখা বলতে আপনি কোন পণ্য বা সার্ভিস বা অন্য যেকোনো কিছু প্রোডাক্ট নিয়ে ওই প্রোডাক্ট এর বিষয়ে ভালো অথবা খারাপ এর বিষয়ে মন্তব্য লেখালেখি করাকে রিভিউ লেখা বুঝায়।

সহজ কথায় বলতে ধরুন আপনার বন্ধু নতুন একটি টি-শার্ট কিনে নিয়ে আসছে মার্কেট থেকে। এখন তার টি-শার্টটি সম্পর্কে আপনার কাছে ভালো না খারাপ হয়েছে জানতে চাইতে পারে। অথবা তার টি-শার্টটি দেখে আপনি ভালো হয়েছে না খারাপ হয়েছে বা দামের বিষয়ে কম নাকি বেশি হয়েছে এসব বিষয় নিয়ে যে আলোচনা করেন এটিই মূলত রিভিউ।

রিভিউ লেখালেখি মূলত কনটেন্ট রাইটিং পর্যায়ে পড়ে। যেমন ধরুন বাজারে একটি নতুন মোবাইল এসেছে অথবা আসবে। এখন আপনি একজন কনটেন্ট রাইটার হিসেবে ওই মোবাইলের উপরে একটি রিভিউ লিখলেন। মোবাইলটি ডিজাইন, মোবাইলটির স্পেসিফিকেশন, ডিসপ্লের আকার বিবেচনা করে বাজারে মোবাইলটি কিরকম যাবে এ ধরনের একটি মন্তব্য আপনি অনলাইন প্লাটফর্ম লিখলেন। এই লেখালেখির মাধ্যমে আপনি আয় করতে পারবেন।

মূলত কনটেন্ট রাইটিং প্ল্যাটফর্ম এর মধ্যে রিভিউ লেখা কনটেন্ট অনেক সহজ। যদি আপনি কোন অভিজ্ঞ কনটেন্ট রাইটার এর সাথে জানতে চান যে, ক্যারিয়ার শুরু করতে কনটেন্ট রাইটিং এর ক্ষেত্রে হচ্ছে ভালো ধাপ কোনটি হতে পারে তাহলে তাকে দেখবেন রিভিউ লেখালেখি করে কনটেন্ট রাইটিং শুরু করতে বলতেন।

কিভাবে আপনি রিভিউ লিখে আয় করতে পারেন

নিজে একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে রিভিউ বা অন্য যে কোন কিছু লিখে আয় করতে পারেন।

আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট থাকে তাহলে এটি মূলত আপনার একটি বিজনেস। আপনার ওয়েব সাইটে আপনি যে কোন কিছু লিখতে পারেন যেকোনো বিষয়। এক্ষেত্রে আপনাকে কেউ বাধা দিতে আসবে না। প্রথম অবস্থায় শুধুমাত্র রিভিউ কনটেন্ট লিখে শুরু করতে পারেন। বাংলাদেশের অনেক ব্লগার আছে যারা বর্তমানে শুধুমাত্র রিভিউ লিখে প্রতিমাসে মোটা অঙ্কের অর্থ আয় করতেছে।

ব্লগ সাইট থেকে আয় করার মাধ্যম অনেক ধরনের রয়েছে তার মধ্যে গুগল এডসেন্স একটি অন্যতম মাধ্যম শুরু করার জন্য। আপনি গুগল এডসেন্স ব্যবহার করে ব্লগ সাইট থেকে আয় করতে পারেন।

আস্তে আস্তে বিডি পপুলারে পর পর আপনি অনলাইনে কিভাবে সফলভাবে একটি ক্যারিয়ার গড়তে পারেন তা নিয়ে পোস্ট করা হবে।

যদিও এখন অনেকেই অনলাইনে আয় বিষয়ক নিয়ে অনেক ধরনের ভাল ভাল পোষ্ট পাবলিশ করে থাকে কিন্তু এগুলোর মধ্যে প্রথম দিক দিয়ে সীমাবদ্ধতা থাকে প্রচুর পরিমাণে। যার কারণে অনেকেই ধৈর্য হারিয়ে হাপিয়ে ওঠে। এবং অল্প দিনেই কাজের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে যায়। বাঙালি বলে কথা। আমরা সব সময় খুবই আবেগী হয়। যেকোনো কাজ খুব আগ্রহ এবং অতি উৎসাহ নিয়ে শুরু করি কিন্তু মাঝ পর্যায়ে খুব সহজেই আবার ভেঙে যাই।

যাই হোক কাজের কথায় আসি।

রিভিউ লিখে অনলাইনে আয় করার জন্য আরেকটি উপায় হলো অন্যের সাইটে রিভিউ লেখা।

ইন্টারনেট ঘাটাঘাটি করলে বর্তমানে আপনি এমন অনেকগুলো ওয়েবসাইট পেয়ে যাবেন যেখানে রিভিউ লেখা যায়। অর্থাৎ রিভিউ কনটেন্ট লেখার সুযোগ তারা রাখে তাদের ওয়েবসাইটে। ঐরকম ওয়েবসাইটে আপনি নিজের একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে রিভিউ লেখা শুরু করে দিতে পারেন। পাশাপাশি এই বিষয়টি নিশ্চিত হয় নেবেন যারা ওইখানে রিভিউ অলরেডি লিখেছে তাদের অবস্থা কিরকম।

তারা কি পেমেন্ট নিশ্চিত করতে পারতাছে কিনা। যদি আপনার যাচাই-বাছাই ঠিক হয় তাহলে শুরু করে দিন এখনই রিভিউ লেখা।

বিডি পপুলারে আমি এবং আমার টিম আপনাদের জন্যও লেখার সুযোগ তৈরি করতে যাচ্ছে। আপনি যদি টেকনোলজি রিলেটেড বাংলাতে বিভিন্ন লেটেস্ট খবরাখবর গুলো লিখতে পারেন এবং বিভিন্ন ধরনের টিপস এবং ট্রিকস শেয়ার করতে পারেন তাহলে বিডি পপুলারে কাজ করার সুযোগ হতে পারে আপনারও। আমরা জানিয়ে দেবো কখন থেকে এই ধরনের একটি কার্যক্রম আমরা শুরু করব।

আশাকরি জানতে পেরেছেন যে, কিভাবে অনলাইনে রিভিউ লিখে আয় করবেন। আসলে অনলাইন হলো একটি মুক্ত পেশার অবস্থান। অর্থাৎ আপনি যা জানেন সেটি অনলাইনের মাধ্যমে কিভাবে করা যায় তা যদি একবার খুঁজে বের করতে পারেন তাহলে অনলাইনে আয়ের অনেক উপায় রয়েছে।

সব সময় নিজের যা ভাললাগে করতে অর্থাত যে কাজটি করে আপনি কখনো বোরিং ফিল করেন না সব সময় আনন্দ পান ওই কাজটি সবসময় করার চেষ্টা করবেন। কেননা কাজের প্রতি আগ্রহ না থাকলে একসময় আপনি যেকোন ধরনের কাজ করতে গিয়ে আনইজি ফিল করবেন। এবং আনইজি ফিল করলে বা আগ্রহ না হলে আপনার কাজের আউটপুট কখনোই ভালো আসবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *