ওয়াইফাই কভারেজ কে শক্তিশালী করার ৫টি উপায়

 বর্তমান সময়ে আমরা ইন্টারনেট ব্যবস্থার জন্য দূর-দূরান্তে সহজেই তথ্য আদান-প্রদানসহ যোগাযোগ করতে পারি। আর যেখানে ইন্টারনেট নামটি আসছে সেখানে অবশ্যই ওয়াইফাই নামটিও ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বর্তমানে আমরা ওয়াইফাই এর মাধ্যমে বেশিরভাগ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু সেই ওয়াইফাই সিগন্যাল যদি শক্তিশালী না হয় তাহলে কোন মজা থাকেনা ইন্টারনেট ব্যবহার করে।

আমাদের দেশে এখনও অনেক মানুষ রয়েছে যারা বিভিন্ন প্রয়োজনে সিমে মেগাবাইট ক্রয় করে ইন্টারনেট ব্যবহার করে। কিন্তু যতই দিন যাচ্ছে ওয়াইফাই ব্যবহারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে মাঝেমধ্যে আমরা যে টাকা দিয়েই স্পিড ক্রয় করেছি সেটা না পাওয়ায় অনেক রাগ হয়। আমার অনেক সময় ইন্টারনেট সরবরাহকারীর নেট স্পিড ঠিক থাকার পরও এই সমস্যা বিরাজ করে। 

তবে তাহলে কি আমরা একবারও ভেবেছি, কখনোই না!!

 যদি আপনি প্রতিনিয়ত এমন সমস্যায় পড়ে থাকেন তাহলে একটি চিন্তার বিষয়। তবে চিন্তা নেই, আমরা আপনার কয়েকটি দারুন উপায় নিয়ে হাজির হয়েছি ওয়াইফাই সিগন্যাল বাড়িয়ে নিতে পারবেন যার মাধ্যমে।

প্রথমে সমস্যাটি খুঁজে বের করুন

আপনার প্রথম কাজটি হচ্ছে কয়েকবার ওয়াইফাই স্পিড চেক করা। কারণ এটা না করে আপনি কোনোভাবেই ইন্টারনেট প্রোভাইডার কে দোষ দিতে পারবেন না। প্রথমে আপনাকে চেক করতে হবে তারপর যদি দেখেন স্পিড ঠিক নেই তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি জানাতে পারেন। কিন্তু যদি দেখেন আপনার ওয়াইফাই স্পিড ঠিক আছে তাহলে বুঝতে হবে সমস্যাটা আপনার বাসায় সৃষ্টি হয়েছে। তখন আপনাকে কিছু পদক্ষেপ নিতে হবে 

যেভাবে ওয়াইফাই সিগন্যাল শক্তিশালী করবেন

চলুন তাহলে এবার আপনার সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে আলোচনা করি। পাশাপাশি কোন কোন উপায় সিগন্যাল কে শক্তিশালী করা যায় তাও জেনে নেই।

ভালো মানের ক্ষমতাসম্পন্ন রাউটার

প্রথমে  আপনাকে দেখতে হবে আপনার রাউটারের কোন ধরনের সমস্যা হচ্ছে কিনা।  যেমন এটি হতে পারে রাউটার রাখার স্থান এর কারণে কিংবা রাউটারের ক্ষমতা কম হওয়ার কারণে। আবার মাঝে মাঝে সংযোগ ঠিকমত না দেওয়ার কারণে হতে পারে। 

অনেকেই আছেন যারা কম দামে রাউটার কিনে ভালো কিছু আশা করেন। তবে ভালো সিগন্যালের জন্য উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন রাউটার কিনাই আপনার জন্য বেশ উপকারী হবে। আবার রাউটার রাখার জন্য সঠিক জায়গাটি নির্বাচন করতে হবে।  সবথেকে ভালো হবে আপনার বারের মাঝখানের স্থানটি নির্বাচন করলে। এতে করে চারদিকে সবাই সমানভাবে রাউটারের সিগন্যাল হবে।

রাউটার লুকিয়ে না রাখা

আপনার রাউটারকে কখনো কোনো বদ্ধ জায়গায় রাখবেন না। বরং এমন একটি জায়গা নির্বাচন করবেন যেখান থেকে পুরো বাড়িতে ওয়াইফাই সিগন্যাল ছড়িয়ে পড়ে। আবার কোন কিছুর পেছনে রাউটারটি রাখলে সিগন্যাল আস্তে বাধাগ্রস্ত হয়। বরং খোলা জায়গায় রাখলে সহজেই সে তার কভারেজ এরিয়ার মধ্যে ভালোভাবে সিগন্যাল পৌঁছাতে পারে।

ওয়াইফাই এক্সটেন্ডার (Wifi Extender) ব্যবহার করুন

আপনার বাসা বাড়ি যদি অনেক বড় হয়ে থাকে কিংবা আপনি যদি একটি ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক দিয়ে আপনার পুরো হিস চালাতে চান তাহলে, ওয়াইফাই এক্সটেন্ডেড হবে আপনার জন্য একটি অনন্য উপায়। কারণ আমাদের বাড়ি কিংবা অফিস যদি অনেক বড় হয়ে থাকে তাহলে একটি রাউটার বাড়ি কিংবা অফিস কভার করতে পারে না।

সেক্ষেত্রে আপনি ওয়াইফাই এক্সটেন্ডার ব্যবহার করতে পারেন। ওয়াইফাই এক্সটেন্ডার ব্যবহার করতে বলার মূল কারণ হচ্ছে এটির মাধ্যমে ওয়াইফাই সিগন্যাল রেঞ্জ খুব সহজেই বাড়িয়ে নেওয়া যায়। তবে এটি কারণে আপনার ওয়াইফাই স্পিড বাড়বে না বরং বাড়ির সকল কোনায় ওয়াইফাই পৌঁছাতে অনেক সাহায্য করবে।

প্রতিবেশি কিংবা অন্যান্য ইউজারদের সরিয়ে ফেলুন

আমাদের মধ্যে হয়তো অনেকেই আছেন যারা ওয়াইফাই ব্যবহার করতে গিয়ে এমন অপ্রীতিকর সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। কারণ অনেক সময় আশেপাশের মানুষ কিংবা চেনা অনেক মানুষ এসে ওয়াইফাই এর পাসওয়ার্ড চায়। আবার অনেকে আছেন যারা ওয়াইফাই হ্যাক করে পাসওয়ার্ড বের করে কানেক্ট করে নেয়। যাইহোক মূল বিষয় হচ্ছে একাধিক ব্যবহারকারী হওয়ার পরেই স্ত্রী এবং সিগন্যাল উভয়ই কমে যায়।

সেক্ষেত্রে আপনি আপনার ওয়াইফাই এর পাসওয়ার্ড নিরাপত্তার জন্য WEP এর পরিবর্তে WAP 3 ব্যবহার করতে পারেন। যা বর্তমানে সবথেকে শক্তিশালী পাসওয়ার্ড নিরাপত্তার ক্ষেত্রে। আর এর ফলে আপনার রাউটারের পাসওয়ার্ড হ্যাক হওয়ার ভয় থাকবে না। আপনি এই সুবিধাটি পেতে পারেন বর্তমানের ভালোমানের রাউটারগুলোতে।

আজকে যে কথাগুলো বললাম এগুলো ছাড়াও আরও বিভিন্নভাবে সমস্যা হতে পারে আবার উপায়ও পাওয়া যায়। তাই সকল আপডেট বিষয় জানতে সবসময় আমাদের সাথেই থাকুন।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?

Leave a Comment