ক্যালকুলেটর কিভাবে কাজ করে – জেনে নিন

ক্যালকুলেটর শব্দটি বর্তমানে আমাদের সকলের সাথেই পরিচিত। কারণ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজে ক্যালকুলেটর ব্যবহার হয়। ক্যালকুলেটরের সাহায্যে সাধারণত আমরা বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ হিসাব-নিকাশের কাজ করে থাকি।

যে সকল হিসাব নিকাশ মানুষের করতে সারাদিন কিংবা দিনের পর দিন লেগে যায় সেই হিসাবের কাজটি ক্যালকুলেটর কিছু সেকেন্ডের মধ্যেই করে ফেলে। কিন্তু অনেকের মনেই প্রশ্ন আসতে পারে, ক্যালকুলেটর কিভাবে কাজ করে।

 হ্যাঁ আজকে আমাদের পোস্টে এই বিষয় নিয়ে যে ক্যালকুলেটর কিভাবে কাজ করে। শুধু আপনার নয় এটা অনেকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক।

ক্যালকুলেটর যেভাবে কাজ করে

১) আমরা ক্যালকুলেটরের উপরিভাগে প্লাস্টিক বোর্ডে থাকা নাম্বার বাটন প্রথমে প্রেস করি। এতে নাম্বারের নিচে থাকা রাবারের আবরণটি সংকুচিত হয়। এটি এক ধরনের ক্ষুদ্র ট্রাম্পেলিন, যা ক্যালকুলেটরের প্রতিটি বাটন এর নিচে সরাসরি একটি ছোট রাবার হতাম এবং তার নিচে ফাঁকা স্থান রয়েছে। যখনই ক্যালকুলেটরে নাম্বার প্রেস করা হয় সেই ফাঁকা স্থানের ঝিল্লি থেকে নাম্বার কালেক্ট হয়ে যায়। 

২) যখনই রাবার বাটনটি নিচের দিকে চাপ দেয়, তখন কিবোর্ড এর সেন্সরের নিচে থাকা দুটি লেয়ার এর মধ্যে ইলেকট্রনিক যোগাযোগ তৈরি হয়। আর তখনই ইনপুট দেওয়া নাম্বারটি ডিটেক্ট করে নেয় কি-বোর্ড সার্কিট। 

৩) তারপর, প্রসেসর চিপ নাম্বার (প্রেস করা কি) ফিগার আউট করে।

৪)প্রসেসর চিপে থাকা একটি সার্কিট ক্যালকুলেট করার জন্য একটিভ করে উপযুক্ত সেগমেন্ট প্রেস করা নাম্বারের সাথে করোসপেন্ডিং করে।

৫) যখন আমরা একাধিক নাম্বার ক্যালকুলেটরে প্রেস করি, প্রচার সচিব তখন ডিসপ্লে সেগুলোতে শো করে এবং যতক্ষণ না যোগ, বিয়োগ, গুন, ভাগ বা অন্য কোনো ফর্মুলা প্রেস না করি, প্রসেসর কি ততক্ষণ পর্যন্ত একই কাজ করতে থাকে। 

৬)রেজিস্টার নামের ক্যালকুলেটরে থাকা একটি মেমোরি নাম্বারগুলো এবং অপারেট করার প্রক্রিয়াটি স্টোর করতে থাকে। আর যখনই ফাইনালি অপারেশন সাক্সেস করে তখন ডিসপ্লে তে ফলাফল শো করে।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?

Leave a Comment