কাকার মতে চাপমুক্ত নেইমারে হেক্সা জিতবে ব্রাজিল

২০০২ সালে সেরভের ব্রাজিল বিশ্বকাপ জিতেছে। পেরিয়ে গেছে ২০ বছর, আর এই সময় কোপা আমেরিকা, কনফেডারেশন কাপ, অলিম্পিক স্বর্ণ জিতলেও বিশ্বকাপ জেতা হয়নি সেলেসাওদের। ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জয়ী কিংবদন্তি কাকা ২০২২ বিশ্বকাপে ব্রাজিলকে নিয়ে আশাবাদী।

নেইমারের সাথে এবার এক ঝাঁক তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড় থাকায় কাকা ব্রাজিলের ভালো সম্ভাবনা দেখছেন। তাছাড়া এবারের দলটি ভালো ভারসাম্যপূর্ণ তাই তিনি মনে করেন নেইমার এবার নির্ভার হয়ে খেলতে পারবে এবং ব্রাজিলকে ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ এনে দিতে পারবে।

২০০২ বিশ্বকাপে জার্মানিকে হারিয়ে ৫ম বিশ্বকাপ জয়ের পর থেকে বিশ্বকাপ খরায় ভুগছে বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল দলটি। কোরিয়া-জাপান বিশ্বকাপের পর, পরের চার আসরে ৩ বার কোয়ার্টার ফাইনাল ও ১ বার সেমিফাইনাল খেলে ব্রাজিল। বিশ্বকাপ জিততে না পারলেও বাকি সব টুর্নামেন্টের সফল ছিল ব্রাজিল।

বিগত একযুগের ব্রাজিল সুপারস্টার নেইমার ইতিমধ্যে ব্রাজিলের হয়ে ২০১৩ সালের কনফেডারেশন কাপ জিতেছে। সেই সাথে ব্রাজিলের অধরা অলিম্পিক স্বর্ণ নেইমারের হাত ধরে জিতে ব্রাজিল। তাই ব্রাজিলের সাবেক বিশ্বসেরা তারকা কাকার নেইমারের যোগ্যতা নিয়ে কোনো ধরনের সন্দেহ নেই।

তিনি মনে করেন নেইমারের সাথে এবার ভিনিসিয়াস, রাফিনহা, এন্টনি এর মত তারকারা আছেন বলে নেইমার চাপমুক্ত হয়ে ভালো খেলবে। আর তা ব্রাজিলকে হেক্সা জিততে সাহায্য করবে।

ফিফা প্লাস কে দেয়া সাক্ষাৎকারে কাকা বলেন, ব্রাজিলের বর্তমান দলটা সফল দল এরই মধ্যে কোপা আমেরিকা, অলিম্পিক জিতেছে তারা। তারা খুব ভালোভাবেই বিশ্বকাপের জন্য এগোচ্ছে। রাফিনহা, ভিনিসিয়াস, এন্টনি তারা নিজ নিজ ক্লাবের হয়ে দারুণ ফর্মে রয়েছে এবং জাতীয় দলের হয়েও ভালো করছে।

তাছাড়া তিনি নেইমারের প্রশংসা করেন। নেইমারের সম্পর্কে বলেন, ওর ব্যাপারে কিছু বলার প্রয়োজন নেই, আমার মতে দলে আরো ভালো খেলোয়ার থাকায় নেইমারের এখন ভালো করার সুযোগ বেড়ে গেছে। ব্রাজিল এখন নেইমারের একার উপর নির্ভরশীল নয়। ব্রাজিল দলে এখন নেইমার ছাড়াও ম্যাচ জিতানো আরো খেলোয়ার আছে।

কাকা বললেন নেইমার একাই একটি ম্যাচের ফল নির্ধারণ করে দিতে পারেন। ব্রাজিল দলের তরুণ প্রতিভাবান খেলার উপস্থিত থাকায় নেইমার এখন চাপমুক্ত খেলতে পারবে। যার ফলে নেইমারের পারফরম্যান্স আরো ভালো হবে। নেইমার এখন শান্ত থেকে গুছানো ভাবে নিজের খেলা খেলতে পারবে। যেকোনো সময় ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে নেইমার। 

নেইমারের পাশাপাশি কোচ তিতের উপর আশাবাদী কাকা। তিনি মনে করেন তিতে বিশ্বকাপের আগে দীর্ঘ সময় পাওয়ায় ভালো একটা দল গড়ে তুলতে পেরেছেন। এছাড়া গত বিশ্বকাপে বেলজিয়ামের সাথে হেরে কোয়ার্টার ফাইনালে বাদ হওয়ার পর তিতেকে বরখাস্ত না করা ভালো সিদ্ধান্ত ছিল বলে তিনি মনে করেন।

তিতে ভিন্ন পরিকল্পনা নিয়ে, ভিন্ন দল নিয়ে এগোতে পারবে। ব্রাজিল বর্তমান দলের অনেক খেলোয়াড়কে নিজে বেড়ে উঠতে দেখেছেন তিনি। আর সব মিলিয়ে ব্রাজিলের জন্য ভালো হয়েছে।

তিতে দায়িত্ব নেয়ার পর ব্রাজিলের পরিসংখ্যান তিতের পক্ষেই কথা বলে। তিতের অধীনে ব্রাজিল দুইবার কোপার ফাইনালে উঠেছে একবার চ্যাম্পিয়ন এবং একবার রানার্সআপ হয়েছে। ২০১৬ সালের জুন মাসে ব্রাজিলের দায়িত্ব নেয়ার পর, ৭৪ ম্যাচে ৫৫ জয়, ১৪ ড্র, ৫ হার ব্রাজিলের। ম্যাচ জয়ের হার ৭৪.৩২%।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?