ভূমিকম্প থেকে সতর্কতা ও সচেতনতা

earthquake

আমরা ভূমিকম্প নামটি জন্মের পর থেকেই শুনে আসছি, আবার অনেক সময় অনুভব ও করেছি। আকাশে মেঘ দেখে বলে দেয় যে বৃষ্টি হতে পারে কিংবা বজ্রপাত হতে পারে। কিন্তু কখনও এটা বলা যায় না যে কখন বা কোথায় ভূমিকম্প হতে পারে।

আর কখন কোথায় ভূমিকম্প হবে এ সম্পর্কে জানার মতো এখনও কোন প্রযুক্তি আবিষ্কার হয়নি। তবে ভূমিকম্প হওয়ার পর আমরা অনুভব করতে পারি ভূমিকম্প হয়েছে, এছাড়া ভূমিকম্প হওয়ার পর করনীয় সম্পর্কে অনেক গবেষনাই রয়েছে।

কখন ভূমিকম্প হবে এ সম্পর্কে আমাদের ধারনা থাকলেও ভূমিকম্পের সময় ও ভূমিকম্পের পরবর্তী সম‍য়ে কিছু সতর্কতা ও সচেতনতা বাচিয়ে দিতে পারে জীবন। তবে অবশ্যই এই সম্পর্কে ধারনা থাকতে হবে নতুবা চলে যেতে পারে আপনার মূল্যবান জীবন। ভূমিকম্প বিভিন্ন মাত্রায় হয়ে থাকে, কিন্তু যেমনি হোক না কেন আমাদের অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে ও সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

ভূমিকম্প অনুভূত হলে যে সাবধানতা অবলম্বন করতে পারেন

>যদি বুঝতে পারেন ভূমিকম্প হচ্ছে বা অনুভূত হয় তাহলে আপনার ও বসবাসরত প্রতিটি পরিবারের একান্ত করনীয় কাজ সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো।

>ভূমিকম্প হলে অবশ্যই সর্বপ্রথমে সকলকে নিরাপদ জায়গায় আশ্রয় নিতে হবে। যেমনঃ খাটের নিচে, টেবিলের নিচে কিংবা বেঞ্চের নিচে। তবে অবস্থান বুঝে এই কাজ করতে হবে।

>এরপর অবস্থা ও পরিস্থিতি বুঝে বাড়ির মেইন সুইচ বন্ধ করে দিতে হবে, যেনো কোন প্রকার দুর্ঘটনা না ঘটে।

>ভূমিকম্প অনুভূত হলে চেষ্টা করবেন বাড়ির সকল দড়জা খুলে দেওয়ার। কারন, ভূমিকম্পের ফলে দড়জা আটকে যেতে পারে, ফলে আপনি বাইরে বের হতে পারবেন না।

>খালি মাঠ বা খোলা যায়গায় আশ্রয় নিতে হবে। কোন প্রকার বিল্ডিং এর নিচে আশ্রয় নেয়া যাবে না বা থাকা যাবে না, এতে যেকোন সময় মাথার উপড়ে ভেঙ্গে পড়ার সম্ভাবনা থাকে।

>বিল্ডিং থেকে বের হওয়ার সময় মাথায় বালিশ দিয়ে তারপর সিড়ি দিয়ে নামার চেষ্টা করবেন। কারন যেকোন সময় কিছু ভেঙ্গে পড়ার সম্ভাবনা থাকে মাথায়। তবে ভুলেও লিফট ব্যবহার করা যাবে না। কারন বিদ্যুত চলে যাওয়ার পর লিফট বন্ধ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে বা তার ছিড়ে লিফট নিচে পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে অধিক মাত্রায় ভূমিকম্প হলে।

>আপনার আশেপাশে টর্চলাইট, রেডিও কিংবা শুকনো খাবার রাখার চেষ্টা করন। অনেক কাজে আসবে।

প্রত্যাকটি দেশের সরকারের উচিত ভূমিকম্পের সময় ও ভূমিকম্পের পরবর্তী করনীয় সম্পর্কে দীর্ঘ মেয়াদী কেম্পেইন চালু করে ধারনা দেওয়া ও প্রশিক্ষন দেওয়া। তবে যেকোন বিপদের সময় সকলকে অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

কারন সাবধানতাই পারে সকল ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে নিজেকে সুরক্ষিত রাখে। জীবন এজকটাই তাই সবসময়মহান সৃষ্টিকর্তাকে স্মরন করুন ও যেকোন বিপদে সতর্ক থেকে তার কাছে সাহায্য চান।

Related Topic:
Earthquake-warning-and-awareness.
What to do during an earthquake?
What to do after an earthquake?

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?