উচ্চশিক্ষার জন্য ভালো দেশ বাছাই করার নিয়ম

উচ্চশিক্ষার জন্য ভালো দেশ বাছাই করার নিয়ম

কোন দেশ উচ্চশিক্ষার জন্য ভালো যদি বলা হয় তাহলে প্রথমেই নির্ভর করে আপনার উপর আপনার চিন্তাধারার উপর। কারন যখন বাইরের দেশে উচ্চ শিক্ষার করার কথা আসে তখন অনেকের মনেই প্রশ্ন আসে কোন দেশ উচ্চ শিক্ষার জন্য ভালো, কোন দেশে আইইএলটিএস লাগে, কোথায় পার্ট টাইম জব পাওয়া যায়, কোথায় যেতে খরচ কম হবে ইত্যাদি ধরনের অনেক প্রশ্নই মাথায় ঘোরপাক খায়।

এই সকল প্রশ্নের উপর ভিত্তি করেই আজকের আমাদের এই আর্টিকেলটি। কথা না বাড়িয়ে তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

হোমসিক মানুষদের জন্য কোন দেশে উচ্চ শিক্ষা ভালো

আপনার যদি বাড়ি ও বাড়ির মানুষদের প্রতি বেশি মায়া থাকে অর্থাৎ হোমসিক হয়ে থাকেন তাহলে আপনার উচ্চশিক্ষার জন্য এশিয়ান দেশ নির্বাচন করতে পারেন। আপনি বাংলাদেশ থেকে ইন্ডিয়া ও চায়না নির্বাচন করতে পারেন। কারন এই দুটি দেশ বাংলাদেশের খুব কাছে এবং আপনি সহজেই আসতে ও যেতে পারবেন। আর সেখানেও ভালো মানের বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। তবে মূল কথা হলো আপনি হোমসিক হয়ে থাকলে এশিয়ান কোন দেশ সিলেক্ট করতে পারেন, যেখানে সহজে যাতায়াত করা যায়।

ভবিষ্যত পরিকল্পনার জন্য কোন দেশে উচ্চশিক্ষা ভালো

আপনার যদি ভবিষ্যত পরিকল্পনা থাকে আপনি উচ্চ শিক্ষা করে সেই দেশেই সেটেলড হবেন তাহলে আপনাকে সেই সমস্ত দেশে যেয়ে পড়াশুনা করতে হবে। যেখানে অন্যান্য দেশগুলো থেকে তুলনামূলক সহজেই নাগরিকত্ব প্রদান করা হয় ও সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকে।

আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা যদি উচ্চ শিক্ষা শেষ করে স্থায়ী বাসিন্দা বা পার্মানেন্ট সেটেলড হওয়ার থাকে তাহলে আপনি কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি সহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যেতেব পারেন। কারন সেখানে স্থায়ী বাসিন্দা হওয়ার অনেক সুযোগ রয়েছে।

তাছাড়া আপনি খোজ নিয়ে দেখতে পারেন কোন দেশ গুলো নাগড়িকত্ব প্রদান করার দিক থেকে তালিকায় এগিয়ে আছে, আপনি চাইলে সেই দেশগুলোতে উচ্চ শিক্ষার জন্য যেতে পারেন।

উচ্চশিক্ষার পাশাপাশি পার্ট টাইম জবের জন্য কোন দেশ ভালো

আমদের দেশের বেশিরভাগ মানুষের লক্ষ্য থাকে বিদেশে যেয়ে উচ্চ শিক্ষার পাশাপাশি পার্ট টাইম জব করার। কারন অনেকের মাথায় চিন্তা থাকে ফ্যামিলিকে সাপোর্ট করার পাশাপাশি নিজেকেও সাপোর্ট করা। তাছাড়া উচ্চ শিক্ষার জন্য সেই দেশে গিয়ে পার্ট টাইম জবের মাধ্যমে কিছুটা হলেও নিজের পড়াশোনার খরচ চালানোর।

পড়াশোনার পাশাপাশি যদি আপনার পার্ট টাইম জব করার ইচ্ছা থাকে তাহলে আপনার গন্তব্য হতে পারে কানাডা। কানাডা খুবই ভালো একটি দেশ যেখানে অনেক সুযোগ রয়েছে পার্ট টাইম জব করার।

চাইলে আপনি জার্মানি ও চয়েজ করতে পারেন, তবে এর জন্য  সবথেকে ভালো হবে জার্মানির ভাষা শেখা।

বেশিরভাগ দেশেই পার্ট টাইম জব করার জন্য লিমিটেড টাইম রয়েছে বিশেষ করে ইউরোপের দেশগুলোতে। সেখানে সাধারনত কিছু কিছু জায়গায় সপ্তাহে ২০ ঘন্টা কাজ করতে পারবেন।

তাছাড়া আপনি খোজ নিয়ে দেখতে পারেন কোন দেশ গুলো পার্ট টাইম জবের সুযোগ প্রদান করার দিক থেকে এগিয়ে আছে, আপনি চাইলে সেই দেশগুলোতে উচ্চ শিক্ষার জন্য যেতে পারেন।

কম খরচের জন্য কোন দেশে উচ্চ শিক্ষা ভালো

আপনাকে উচ্চ শিক্ষার জন্য দেশ সিলেক্ট করার আগে কোন দেশে  থাকার খরচ কেমন বা খাওয়ার খরচ কেম্মন সেই সম্পর্কে কম বেশি ধারনা থাকতে হবে। এছাড়াও আপনি যেই ইউনিভার্সিটিতে পড়বেন তার টিউশন ফি কেমন ও যাওয়ার জন্য ব্যাংক অ্যাকাউন্টের টাকা দেখাতে হবে কিনা সেই বিষয়েও জানতে হবে।

যেমন জার্মানিতে উচ্চশিক্ষা করতে যাওয়ার জন্য ১২ লক্ষ টাকা দেখাতে হবে আপনাকে ব্যাংক অ্যাকাউন্টে। এমন আরো অনেক দেশ রয়েছে যেখানে যাওয়ার জন্য ব্যাঙ্গক অ্যাকাউন্য়াটাকা দেখাতে হয়, তাই আপনাকে এই বিষয়টা মাথায় রাখতে হবে। আবার কিছু কিছু দেশে এর থেকেও বেশি টাকা লাগতে পারে।

অনেক দেশ রয়েছে যারা উচ্চশিক্ষার জন্য নির্দিষ্ট পরিমানের কিছু স্কলারশিপ দিয়ে থাকে। ব্যাচেলর দের জন্য খুবই সীমিত স্কলারশিপ দিয়ে থাকে কিন্তু পি এইচ ডি করার জন্য অনেক স্কলারশিপ দিয়ে থাকে। আপনি যদি স্কলারশিপ পেয়ে যান তাহলে টাকা পসার বিষয়ে তেমন দেখতে হয় না। কারন তখন শুধু টিউশন ফি ও খাওয়া-থাকার ব্যাপারটা দেখতে হয়।

তাছাড়া আপনি খোজ নিয়ে দেখতে পারেন কোন দেশ উচ্চ শিক্ষা করার জন্য টাকার পরিমান কম রয়েছে বা তালিকায় এগিয়ে আছে, আপনি চাইলে সেই দেশগুলোতে উচ্চ শিক্ষার জন্য যেতে পারেন।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?