গরমের জুতা – স্লিপার, স্নিকার্স, মোক্কাসিন, বোট সু, এসপাড্রিলস

গরমের সময় সকল মানুষ আরামদায়ক পোশাক পড়তে চায় এবং পরে থাকে। পোশাকের সাথে সাথে জুতাও আরামদায়ক প্রয়োজন হয়। আমরা পোশাকের সাথে মিল রেখে জুতা পরে থাকি। আর এই ম্যাচিং করার সময় দেখা যায় বিষয়টি ঠিক মেলে না।

ফ্যাশনেবল ও আরামদায়ক জুতা পরতে চাইলে স্টাইলিশ জুতার খোঁজ জানতে হবে আপনাকে। আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো গরমের সময় কেমন জুতা আরামদায়ক হবে।

গরমকালে যে ধরনের জুতা পরে আরাম পাবেন

স্লিপার

টি-শার্ট, পাঞ্জাবি বা ফতুয়ার সাথে স্লিপার ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে নরম এবং একটু পুরু সোলের স্লিপার গুলো পায়ে পড়লে আরাম পাবেন। স্লিপার পড়লে যেহেতু পা খোলামেলা অবস্থায় থাকে তাই ঘেমে যাওয়ার আশঙ্কা থাকবে না অন্যদিকে উচু সোলের কারণে পায়ে ধুলা বালি লাগার সম্ভাবনা কম থাকবে।

স্নিকার্স

এই ধরনের জুতা পরতে বেশ আরামদায়ক। বর্তমান বাজারে বিভিন্ন ধরনের সুন্দর স্টাইলিশ স্নিকার্স পাওয়া যায়। আপনার পোশাকের সাথে মিলিয়ে পছন্দের জুতাটি পড়লে আপনাকে স্টাইলিশ দেখাবে।

মোক্কাসিন

শার্ট অথবা টি শার্টের সাথে ব্লেজার পড়ে তার সঙ্গে মানিয়ে এ ধরনের জুতা পরলে দারুন লাগে। মোক্কাসিন জুতা স্টাইলিশ লুক এবং পরতে আরামদায়ক। এ ধরনের জুতা ফিতা সহ এবং ফিতা ছাড়া পাওয়া যায়। মোজা ছাড়া বা মোজা সহ দুই অবস্থায় এ ধরনের জুতা পরা যায়।

বোট সু

বুট সো সাধারণত যেকোনো পোশাকের সাথে পড়তে পারেন। ক্যানভাস বা লেদারের তৈরি এই জুতা।এই জুতার সোল তৈরি করা হয় রাবার দিয়ে। গরমের সময় মোজা ছাড়াই বোট সু পড়তে পারবেন। এ ধরনের জুতা আপনাকে দেবে স্টাইলিশ লুক।

এসপাড্রিলস

এ ধরনের জুতা হালকা ধরনের হয় বলে বাতাস চলাচলের জন্য উপযোগী। তাই গরমের জন্য এসপাড্রিলস জুতা পরতে আরামদায়ক। যেকোনো ধরনের পোশাকের সাথে এটি মানিয়ে নেওয়া যায়। এই জুতাগুলো নরম পাটের সোলের হয়ে থাকে যা ক্যানভাস দিয়ে তৈরি হয়।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?