হোয়াটসঅ্যাপে ‘ডিলিট ফর এভরিওয়ান’ ২ দিন ১২ ঘন্টা পর্যন্ত

হোয়াটসঅ্যাপে বাড়ছে ডিলিট ফর এভরিওয়ানের সময়

বর্তমানে আমরা অনালেইনের মাধ্যমে সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা আদান-প্রধান করতে বেশ পছন্দ ও স্বাচ্ছন্দ বোধ করি। তবে আমরা মাঝে মধ্যে মেসেজ পাঠাতে গিয়ে ভুল মানুষকে বা গ্রুপে মনের ভুলে মেসেজ পাঠিয়ে থাকি। তখন আমাদের মনে হয় সেই পাঠানো ব্যাক্তির কাছ থেকে মেসেজটি মুছে ফেলতে। তাছাড়া অনেক মানুষকে মেসেজ পাঠানোর পর মনে হয় তাকে মেসেজটি না পাঠালেই মনে হয় ভালো হতো। তখন আমরা সেই মেসেজটি মুছে ফেলার ইচ্ছা প্রকাশ করি।

সর্বপ্রথম ২০১৮ সালে ‘ডিলিট ফর এভরিওয়ান’ সুবিধাটি হোয়াটসঅ্যাপে চালু হয়। ৭ মিনিট পর্যন্ত মেসেজ মুছে ফেলার সুযোগ মিলত এই সুবিধাটি চালু হওয়ার শুরুতে।

এমনি সুযোগ হোয়াটসঅ্যাপে থাকলেও তার সময় সীমিত। আপনি একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সেই মেসেজটি মুছে ফেলতে পারবে। কিন্তু সময় চলে গেলে সেই মেসেজটি আর সেই ব্যাক্তির কাছ থেকে ডিলিট করতে পারবেন না।

হোয়াটসঅ্যাপের এই সুযোগটিকে বলা হয় ‘ডিলিট ফর এভরিওয়ান’ । ডিলিট ফর এভরিওয়ান সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বর্তমানের মেসেজ পাঠানোর ১ ঘন্টা ৮ মিনিট ১৬ সেকেন্ড পর আপনি সেই মেসেজটি মুছে ফেলতে পারবেন। তবে অনেক হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী এই সময় বাড়ানোড় জন্য দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

অনেকের মতে তাদের বিভিন্ন ব্যস্ততা ও কাজের জন্য নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পাঠানো মেসেজটি মুছে ফেলা সম্ভব হয় না। যার ফলে এই সমস্যা সমাধানে ব্যবহারকারীদের কথা মাথায় রেখে ‘ডিলিট ফর এভরিওয়ান’ সুবিধার সময় বাড়ানোড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ।

সর্বোচ্চ ২ দিন ১২ ঘন্টা পর মুছে ফেলা যাবে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠানো সেই নির্দিষ্ট মেসেজ। এমনি পরিকল্পনার আওতায় রয়েছে এটি যার ফলে পূর্বের তুলনায় সকলের কাছ থেকে মেসেজ ডিলিট করার সময় বেশি পাওয়া যাবে।

বর্তমানে কিছু আইফোন ব্যাবহারকারীদের ওপর এই সেবাটির কার্যকারিতা পরিক্ষা করে দেখছে মেটার মালিকানাধীন ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং সেবা। সব কিছু ঠিক থাকলে সকলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে এই সেবা।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?