ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ছুটি চেয়েছেন সাকিব আল হাসান

সাকিব আল হাসান ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ থেকে বিসিবির কাছে আনুষ্ঠানিক ছুটি চেয়েছেন। আনুষ্ঠানিকভাবে বিসিবিকে এখনো ছুটির জন্য কোন চিঠি না দিলেও ক্রিকেট অপারেশন বিভাগকে সাকিব ছুটিতে যাওয়ার কথা জানান।

এদিকে গত ২৯ জুন, বুধবার সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান,ওয়ানডে সিরিজের জন্য শাকিব ক্রিকেট অপারেশন কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস কে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানিয়েছেন। তিনি শাকিবের ছুটি মঞ্জুর করার ইঙ্গিত দিয়েছেন।

বিসিবির সভাপতি আরো বলেন, সাকিব যাওয়ার আগে বলেছিল টেস্ট খেলবে না শুধু ওয়ানডে ও টি-২০ খেলবে। আমার সাথে কথা বলার পর বলল টেস্ট খেলবে এবং পরে তো ওকে অধিনায়কই করা হলো। শুনেছি জালাল ভাইকে সাকিব আগেই বলেছে সে ওয়ানডে সিরিজ নাও খেলতে পারে।

যেহেতু সাকিব আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো বোর্ডের সাথে কথা বলেনি হয়তো দু’এক দিনের মধ্যে জানলে বুঝতে পারব। জালাল ভাই আমাকে বলেছে সাকিব নাকি মৌখিকভাবে ছুটির বিষয়টি জানিয়েছে। তাই এটাকে আনুষ্ঠানিকও থরতে পারেন। 

যেহেতু ওয়ানডে সিরিজটি আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের অন্তর্ভুক্ত না। তাই বিসিবি সভাপতির সাকিবকে ছুটি দিতে আপত্তি নেই। নাজমুল হাসান পাপন আরো বলেন বাংলাদেশের যে সিরিজগুলো আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ বা ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ না এসকল সিরিজগুলোতে সিনিয়র ক্রিকেটাররা ছুটি চাইলে ভালো।

যার ফলে নতুন ক্রিকেটারদের সুযোগ দেয়ার সুযোগ হবে। এটাও জানার বিষয় ওর জায়গায় খেলোয়াড় আছে কি না। সব চিন্তা-ভাবনা আমাদের মাথায় আছে। 

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?