ঘন ঘন গোসলের কারণে ত্বকের শুষ্কতা

বারবার গোসল করলে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে 

আমরা অনেকেই গরমের সময় বারবার গোসল করে থাকি। আপনি কি জানেন এটি আপনার ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। wellandgood.com প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ত্বক বিশেষজ্ঞ মারিসা গার্শিক বলেন ঘন ঘন গোসলের কারণে ত্বকের শুষ্কতা দেখা দিতে পারে। আর এর কারণ হলো পানি ত্বকের প্রাকৃতিক তেল কেড়ে নিতে পারে।

দেহের আদ্রতা রক্ষার জন্য শীত ও গরম উভয়টি সঠিক উপায়ে গোসল করতে  হবে। অবশ্যই আমাদের আর্দ্রতা রক্ষার সঠিক ব্যবস্থা নিতে হবে।

গরমের সময় বেশি সময় ধরে ঝরনার নিচে দাঁড়িয়ে গোসল করতে আরাম লাগে কিন্তু তা ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। দীর্ঘ সময় ধরে গোসল না করে গোসলে যতটা সম্ভব কম সময় ব্যয় করা উচিত। ১০-১৫ এর বেশি সময় ধরে গোসল করলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

শীতকালে আমাদের মধ্যে অনেকেই গরম পানি দিয়ে গোসল করে। আর গরম পানি দিয়ে গোসল করলে ত্বক সুস্থ হয়ে যেতে পারে। শরীরের জন্য ঠান্ডা পানিতে গোসলের উপকারি।

যুক্তরাষ্ট্রের ত্বক বিশেষজ্ঞ মাইকেল গ্রীন বলেন – ঠান্ডা পানি শরীরের সংস্পর্শে আসলে রক্ত সঞ্চালন বেড়ে দেহের ভিতরের অঙ্গগুলোর তাপমাত্রা সুরক্ষিত থাকে।

তাছাড়া ঠান্ডা পানি শরীরের ত্বকের চুলকানি ও প্রদাহ কমায়। ত্বক টানটান রাখে। এর ফলে ত্বক দেখতে সতেজ ও স্বাস্থ্যকর লাগে।

গরমকালে শরীরে বেশি ঘাম হলেও শক্তিশালী সাবান ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ শাবানে উচ্চমাত্রার ক্ষার বা ph থাকে যা ত্বকের প্রাকৃতিক তেল শুষে নেয় এবং ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়।

আরে সমস্যা সমাধানে আপনি সাবান ছাড়া যেকোনো পরিষ্কারক দিয়ে ধীরে ধীরে শরীরে ঘষতে পারেন। নরম বা কোমল পরিষ্কারক ব্যবহার করলে  ত্বক মসৃণ থাকে এবং লোমকূপ সংকুচিত হয়।

নিউইয়র্ক ত্বক বিশেষজ্ঞ ডা. গার্শিক বলেন দেহের আদ্রতা রক্ষা করতে জোরে না ঘষে আলতো ভাবে আস্তে আস্তে মোছা প্রয়োজন। 

যুক্তরাষ্ট্রের আরেক ত্বক বিশেষজ্ঞ মোনা মনে করেন, গোসল করার পর তোয়ালে ব্যবহার না করে বাথরোব ব্যবহার করলে সহজে শরীরের বাড়তি পানি মুছে নেওয়া যায়। 

সর্বশেষে বলতে চাই গোসলের পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন। দেহের আদ্রতা রক্ষা করতে গোসলের পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা প্রয়োজন।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?