স্টোরে থাকা পরিত্যক্ত অ্যাপগুলোর কি হবে

স্টোরে থাকা পরিত্যক্ত অ্যাপগুলোর কি হবে

গুগল প্লে স্টোর সম্পর্কে তো সবাই জানেন। অ্যান্ড্রয়েড এর সব থেকে কার্যকরী যদি কোন কিছু থাকে তাহলে আমি মনে করি সেটা হল গুগল প্লে স্টোর। এখানে পাওয়া যায় না এমন কোন কিছু নাই।

গুগল প্লে স্টোরে ডেভলপাররা তাদের অ্যাপসগুলোকে আপলোড করতে পারেন। এবং সময়ে সময়ে অ্যাপসগুলোকে আপটুডেট রাখার জন্য তাদেরকে আপডেট করতে হয়।

আপনি খেয়াল করলে দেখে থাকবেন যে ফেসবুক ইউটিউব টুইটারের মতো অ্যাপস গুলো কিন্তু প্রায় কয়েক দিন পর পরই আপডেট আসে। অর্থাৎ তারা কিছুদিন পর পরই তাদের অ্যাপসগুলোকে আপডেট করে অর্থাৎ কিছু না কিছু ফাংশন অ্যাড করেন। 

দেখা গেছে দেব প্লে স্টোরে লক্ষ লক্ষ অ্যাপস এর মধ্যে অনেক অ্যাপস নিয়মিত আপডেট করা হয় না। সাম্প্রতিক এক ঈশ্বর যে বলা হয়েছে যে এ পর্যন্ত প্রায় প্লেস্টরে ১৫ লাখ অ্যাপ রয়েছে যেগুলো দীর্ঘদিন ধরে আপডেট করা হয় না।

সম্প্রতি গুগল জানিয়েছে যে এসকল পরিতক্ত অ্যাপস গুলো বাতিল করা হবে। গুগলের মত অ্যাপল তাদের স্টোর থেকে এই ধরনের অ্যাপসগুলোকে বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গুগল এবং অ্যাপল থেকে জানানো হয়েছে যে আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই পরিত্যক্ত অ্যাপস গুলো সরানোর কাজ শুরু হয়ে যাবে। 

সম্প্রতি করা একটা রিচার্জ থেকে জানা যায় পাঁচ বছরেরও বেশি সময় ধরে কোনরকম আপডেট করা হয় না এ ধরনের অ্যাপ এর সংখ্যা প্রায় সাড়ে তিন লাখেরও বেশি। ৮৪ হাজার অ্যাপ রয়েছে অ্যাপল এর অ্যাপ স্টোরে এবং আরো ১ লক্ষ ৩০ হাজার অ্যাপ রয়েছে গুগল প্লে স্টোরে।

সবথেকে বেশি যে অ্যাপ গুলো আপডেট করা হয় না সেগুলো হলো শিক্ষণীয় ও শিশুদের গেম অ্যাপস। 

দীর্ঘদিন ধরে অ্যাপস গুলো আপডেট করা না হলে মূলত যে ধরনের সমস্যা দেখা দেয় তা হলো নিরাপত্তা ব্যবস্থা। কারণ অ্যাপগুলো নিয়মিত আপডেট না করা হলে তাদের সিকিউরিটি প্যাচ পায়না। ফলে এক ধরনের নিরাপত্তা ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা তৈরি হয়। আবার বিজ্ঞাপন থেকে যদি আয় করতে হলেও এসকল অ্যাপসগুলোর নিয়মিত আপডেট রাখা প্রয়োজন। 

পরিতক্ত অ্যাপস গুলোর আপডেট আনার জন্য তাদের ডেভলপারদের এর মধ্যে মেইল করেছে অ্যাপল এবং গুগল। এবং টানা এক মাসের একটি সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে যদি এর মধ্যে অ্যাপস গুলো আপডেট না করা হয় তাহলে স্টোর থেকে অ্যাপ সরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে। 

এ বছরের শেষের দিকে অর্থাৎ ১ নভেম্বর থেকে পরিতক্ত এগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া শুরু করবে অ্যাপল এবং গুগল।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?