লাহোর প্রস্তাব কাকে বলে

আজকের আর্টিকেলে আমরা আপনাদেরকে লাহোর প্রস্তাব কাকে বলে এই বিষয়টি জানাবো।

১৯০৬ সালে মুসলিম লীগ প্রতিষ্ঠিত হয়। আর এটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল ভারতীয় মুসলমানদের সামাজিক, সাংস্কৃতি পরিচিতি এবং অধিকার রক্ষার জন্য। 

আর মুসলমানরা নিজেদের অধিকারের জন্য কথা বলা শুরু করলে শুরু হয় বিভাজন। আর এই পরিপ্রেক্ষিতে মুসলমানদের অধিকার রক্ষার জন্য আলাদা রাষ্ট্র গঠনের দাবি ওঠে। 

ব্রিটিশ ভারতে এই দাবির মধ্য দিয়ে মুসলিম জাতীয়তাবাদের উত্থান হয়েছিল। আর এই দাবির জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে যে ঘোষণা করা হয়েছিল এটি হচ্ছে লাহোর প্রস্তাব। 

শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক ১৯৪০ সালের ২৩ মার্চ লাহোরে অনুষ্ঠিত মুসলিম লীগের সম্মেলনে যে ভাষণ দিয়েছিলেন তা ঐতিহাসিক লাহোর প্রস্তাব নামে পরিচিত।

ভারতীয় উপমহাদেশে বসবাসকারী মুসলমানদের জন্য আলাদা রাষ্ট্র গঠনের জন্য লাহোরে মুসলিম লীগের সম্মেলনে শেরে বাংলা একে ফজলুল হক যে প্রস্তাবনাটি উত্থাপন করেছিলেন সেটি হচ্ছে লাহোর প্রস্তাব।লাহোর প্রস্তাবের তিনটি বিষয় উত্থাপন করা হয়েছিল

ভৌগোলিক অবস্থান অনুযায়ী ভারতবর্ষের প্রতিটি এলাকাকে আলাদাভাবে চিহ্নিত করতে হবে।

মুসলিম অধ্যুষিত দক্ষিণ-পূর্ব এবং উত্তর-পশ্চিম এলাকাগুলোকে এমন ভাবে চিহ্নিত করতে হবে যাতে সেই এলাকা পরবর্তীতে আলাদা স্বাধীন রাষ্ট্র গঠন করতে পারে।

ধর্মীয়, সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং প্রশাসনিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে রাষ্ট্রগুলোর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?