কপালের কালো দাগ দূর করার উপায়

আমরা আমাদের মুখের সৌন্দর্যের জন্য অনেক যত্ন নিয়ে থাকি। কারণ উজ্জ্বল ত্বক কে না চায়। কিন্তু আমাদের মুখের ত্বক উজ্জ্বল করার জন্য ঘরোয়া উপাদান সহ কেমিক্যাল পণ্য সবকিছুই ব্যবহার করে থাকি।

বিশেষ করে আমাদের কপালের দাগ দূর করা খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। কারণ কপালের দাগ সহজে দূর হতে চায় না। এতে যেমন মুখের সৌন্দর্য নষ্ট হয় তেমনই দেখতেও খারাপ লাগে। 

তাই আজকে আপনাদের সাথে আলোচনা করব কিভাবে কপালে দাগ প্রাকৃতিক উপায়ে সহজে দূর করা যেতে পারে।

বাদাম তেল

কপালের দাগ দূরীকরণে বাদামের তেল অনেক সহায়ক হতে পারে। একটি ছোট্ট পাত্রে বাদামের তেল নিয়ে এতে মধু এবং গুঁড়া দুধ মিশিয়ে নিতে হবে। 

তারপর এটি কপালে লাগাতে হবে এবং এর মিশ্রণ শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। কপালের দাগ দূর করার জন্য এটি প্রতিদিন ব্যবহার করুন।

কাঁচা দুধ ও হলুদ

কাঁচা দুধের সাথে হলুদ মিশিয়ে ও কপালে কালো দাগ দূর করা যাবে। কাঁচা দুধে কিছু পরিমাণ হলুদ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করতে হবে। তারপর সেই পেজটি প্রায় ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন এরপর হালকা ম্যাসাজ করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দু’বার এটি ব্যবহার করতে পারেন।

চন্দন পাউডার

কপালের কালো ভাব দূর করতে চন্দন পাউডার খুব কাজ করে থাকে। প্রথমে আধা চামচ চন্দন পাউডার, এক চামচ ডাবের পানি ও সামান্য বাদাম তেল মিশিয়ে ভালোভাবে পেস্ট তৈরি করুন। 

এরপর সেই পেস্টটি কপালে কাজল স্থানে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এই পেস্টটি চাইলে আপনি প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারেন এবং ইনশাল্লাহ এতে কপালের কালো ভাব দূর হয়ে যাবে। 

মুলতানি মাটি

কপালের কালো দাগ দূর করতে মুলতানি মাটি খুব উপকার করে থাকে। মুলতানি মাটি, শঙ্খ চূর্ণ এবং আলুর রস একসাথে মিশিয়ে সেটি কালো দাগের উপর ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখতে হবে। এরপর ধুয়ে ফেলতে হবে।

সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার প্যাকটি লাগাতে পারেন এতে আস্তে আস্তে আপনার কালো দাগ চলে যাবে।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?