ফোনের চার্জ ধরে রাখার উপায়

বর্তমানে সময় শিশু থেকে বৃদ্ধ সকল বয়সের মানুষ মোবাইল ফোন ব্যবহার করে। শুরুর দিকে বাটন মোবাইল এরপর সময়ের সাথে সাথে মানুষ এখন স্মার্টফোন বা এন্ড্রয়েড ব্যবহার করছে। শুরুতেই মানুষ কথা বলার জন্য মোবাইল ব্যবহার করতো। বর্তমানে মুভি দেখা, বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করা, গেমস খেলা ইত্যাদি কাজে মোবাইল ফোন ব্যবহার করে। আর এর জন্য ফোনে চার্জ থাকা জরুরি।

মোবাইলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হচ্ছে এর ব্যাটারি। ব্যাটারি ভালো মানের হলে ফোনে চার্জ বেশিক্ষণ থাকে। যেহেতু বর্তমানে সবাই এক মুহূর্তেও মোবাইল ফোন ছাড়া থাকতে পারে না তাই ফোনের চার্জ বেশিক্ষন থাকা জরুরি হয়ে পড়েছে।

আজকের পোষ্টে আমরা ফোনের চার্জ ধরে রাখার উপায় গুলো আপনাদের জানাবোঃ

  • প্রয়োজন ছাড়া মোবাইলের ব্রাইটনেস সব সময় কমিয়ে রাখা ভালো। এর ফলে মোবাইলে দীর্ঘ সময় চার্জ থাকে।
  • অপ্রয়োজনে ফোনে ভাইব্রেশন চালু থেকে বিরত থাকুন। মোবাইল সাইলেন্ট অথবা রিংটোন দিয়ে রাখুন। ভাইব্রেশন এর ফলে ব্যাটারির অতিরিক্ত শক্তি ব্যবহার হয়।
  • ১০০ % এর বেশি সময় ধরে মোবাইল যেন চার্জে লাগানো না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখুন। কারণ ১০০% বেশি সময় ধরে মোবাইল চার্জে লাগানো থাকলে মোবাইলে অতিরিক্ত গরম হয় এবং ব্যাটারি চার্জ ধারন ক্ষমতা কমে যায়।
  • আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা সব সময় ডাটা অথবা ওয়াইফাই চালু রাখে। এগুলো মোবাইলের চার্জ শেষ করে তাই যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করেন না তখন ওয়াইফাই বা ডাটা বন্ধ রাখুন।
  • বর্তমানে বেশিরভাগ স্মার্টফোনে ব্যাটারি সেভার নামক একটি অপশন থাকে। এ অপশনটি দেয়া হয়েছে মোবাইলে চার্জ বেশি সময় ধরে রাখার জন্য। তাই আপনি ব্যাটারি সেভার চালু রেখে চার্জ ধরে রাখতে পারেন।
  • সবসময় আমরা আমাদের মোবাইলে থাকা সব ধরনের অ্যাপস ব্যবহার করি না। তাই যে অ্যাপ গুলো দরকারি না সেগুলোর ব্যাকগ্রাউন্ড অপশন বন্ধ রাখুন।
  • আমরা অনেকেই শখ করে মোবাইলে এনিমেটেড থিম এবং লাইভ ওয়ালপেপার ওয়ালপেপার ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু আপনি কি জানেন এগুলো ব্যবহারের ফলে মোবাইলে অতিরিক্ত চার্জ খরচ হয়। তাই এগুলো ব্যবহার না করাই ভালো।
  • আমরা প্রয়োজনে মোবাইলের বিভিন্ন ফাংশন যেমনঃ লোকেশন, ব্লুটুথ, হটস্পট এগুলো চালু করে থাকি। প্রয়োজন শেষে আমাদের মনে করে এগুলো আবার বন্ধ করে দিতে হবে। কারণ এগুলো অতিরিক্ত চার্জ খরচ করে।
  • আমাদের মোবাইল ফোনে ডার্ক মোড নামে একটি অপশন রয়েছে। এটি চালু করলে মোবাইলের স্কিন কালো হয়ে যায় তারপর মোবাইলের চার্জ কম ব্যয় হয়। এছাড়া ফেসবুক, মেসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রামে ডার্ক মোড অপশন রয়েছে।এইসব সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার করার সময় মুড অপশন চালু করে ব্যবহার করতে পারেন।
  • মোবাইলের অটো আপডেট ব্যবস্থা ও পুশ নোটিফিকেশন ব্যবস্থা বন্ধ রাখুন। Auto-update ব্যবস্থা চালু থাকলে মোবাইলের অপ্রয়োজনীয় এপস আপডেট হতে থাকে। এছাড়া পুশ নোটিফিকেশন অপশন বেশি দরকার পড়ে না। তাই অপ্রয়োজনীয় এধরনের সকল অপশন বন্ধ রাখুন।

উপরের বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখলে আপনি আপনার ফোনের চার্জ বেশি সময় ধরে রাখতে পারবেন। মনে রাখবেন ফোনের ডিসপ্লে যত বেশি সময় চালু থাকবে তত বেশি চার্জ শেষ হবে।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?