খুরমা খেজুর খাওয়ার নিয়ম

খেজুর এমন একটি ফল যার উপকারিতা ও গুনাগুন বলে শেষ করা যাবে না। খেজুরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে শক্তি। খেজুরের আরবি নাম হচ্ছে নাখইল। 

খেজুরের উপকারিতা সম্পর্কে পবিত্র কুরআনে বলা হয়েছে। খেজুর রয়েছে অনেক ঔষধি গুনাগুন। খুরমা খেজুর পানিতে ভিজিয়ে রেখে তারপর খেতে হবে। 

আজকে আমরা খুরমা খেজুর খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো। 

যে সকল দম্পতির সন্তান হয়না তারা প্রতিদিন ১০ থেকে ২০ টি খেজুর মধু খেলে সন্তান লাভের সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়। 

খেজুর আদা সহ খেলে মানসিক সমস্যা দূর করে এবং মনকে প্রফুল্ল রাখে।

খেজুর, আদা ও মধু একসাথে খেলে স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।

রসুন ও খেজুর একসঙ্গে খেলে হৃদরোগের সম্ভাবনা কমে যায় এবং হৃদপিন্ডের উদ্দীপনা বাড়ে।

দুধ চিনি ছাড়া গরম চা ও কালোজিরা সহ খেজুর খেলে ফুসফুসের সমস্যা দূর হয়।

শুকনো খেজুর জন্য, কালোজিরার তেল ও মধু দিয়ে হালুয়া বানিয়ে খেলে যৌন শক্তি, দৃষ্টিশক্তি, স্নায়ু শক্তি বৃদ্ধি পাবে। 

দুটি খেজুর দুধের মধ্যে দিয়ে ফুটানোর পর সেই পানীয় খালি পেটে খেলে রক্তস্বল্পতা সমস্যা দূর হয়

প্রতিদিন রাতে এক গ্লাস পানিতে খেজুর ভিজিয়ে রাখার পর সেই পানি পরদিন সকালে পান করলে হার্টের সমস্যা কমবে। 

কাঁচা হলুদ ও আদা সহ খেজুর খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতা ও কোমলতা বৃদ্ধি পায়।

খেজুর ঘি দিয়ে ভেজে খেলে স্বাস্থ্য ভালো হয়।

খেজুরের সাথে মাখন মিশিয়ে খেলে যাদের যৌন সমস্যা আছে তা দূর হবে।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?