ডেবিট কার্ডের সুবিধা

ডেবিট কার্ডের সুবিধা

বর্তমানে ডেবিট কার্ডের অনেক প্রচলন হয়েছে। কারণ ডেবিট কার্ডের অনেক সুবিধা রয়েছে। তো ডেবিট কার্ড এর সুবিধা গুলো জানার আগে প্রথম আমাদের জানতে হবে ডেবিট কার্ড আসলে কি?

ডেবিট কার্ড

আমরা যখন কোন ব্যাংক একাউন্টে আমাদের টাকা জমা রাখি তখন সেই ব্যাংক একাউন্টের টাকা খরচ করার জন্য যে ATM কার্ড দেয় সেটাই হলো মূলত ডেবিট কার্ড। তবে ডেবিট কার্ড ব্যবহার করার জন্য প্রথমে আপনার একাউন্টে টাকা থাকতে হবে।

মনে করুন আপনার কোন ব্যাংকে ২ লক্ষ টাকা আছে। তখন ব্যাংক থেকে আপনাকে যেই ডেবিট  কার্ড দেওয়া হবে সেই কার্ডেও আপনার ২ লক্ষ টাকা থাকবে। অর্থাৎ, আপনি আপনার ব্যাংক একাউন্টে যত টাকা জমা রাখবেন আপনার কার্ডে কত টাকায় দেখাবে এবং আপনি সেগুলো ATM এর মাধ্যমে ব্যবহার করতে পারবেন। 

ডেবিট কার্ডের সুবিধা সমূহ

বার্ষিক ফি (Fees)

সাধারণত কোন ব্যাংক তাদের ডেবিট কার্ডের জন্য কোন বার্ষিক ফি রাখে না। যদিও মাঝে মাঝে কখনো পরিষেবা ও রক্ষণাবেক্ষণ চার্জ হিসেবে ছোট প্রয়োজনে কিছু টাকা কাটা যেতে পারে। চার্জ ব্যাংক ভেদে ভিন্ন হতে পারে।

সুদ নেই (No interest)

ডেবিট কার্ড গুলোর কোন সুদ চার্জ নেই কারণ ডেবিট কার্ডের টাকা সরাসরি আপনার ব্যাংক একাউন্ট হতে আসে।

সুরক্ষা (Safety)

ডেবিট কার্ড টি সুরক্ষিত কারণ ডেবিট কার্ড থেকে টাকা উত্তোলনের সময় আপনাকে পিন কোড লিখতে হয়। যার ফলে কেউ আপনার ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে টাকা উত্তোলন করতে চাইলে তাকে আপনার কার্ডের পিন নম্বর জানতে হবে।

আবার আপনার ডেবিট কার্ড হারিয়ে গেলে বা চুরি হয়ে গেলে আপনি আপনার সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন এবং কার্ডটি ব্লক করে দিতে পারেন। 

বাজেটের অনুশীলন

আপনার কাছে যেকোনো মুহূর্তে টাকা না থাকলেও আপনি ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে যেকোনো কিছু কিনতে পারবেন। এতে ডেবিট কার্ডের সাথে আপনার একটি সীমাবদ্ধতা রয়েছে কারণ আপনি সরাসরি আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে খরচ করছেন। 

অনেক স্মার্ট মানুষের স্মার্ট পছন্দ এটি। কারণ এর কোনো বোকেয়া নেই, সুদের হার নেই, কোন ক্ষতি নেই, আপনি শুধু আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে খরচ করবেন।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?