শিশুর ত্বক ফর্সা করার উপায়

শিশুর ত্বক ফর্সা করার উপায়

আমরা সবাই সুন্দর ত্বক চাই। সেজন্য আমরা আমাদের ত্বকের পরিচর্যা করি। সেই সঙ্গে আমরা আমাদের সন্তানের ত্বকের পরিচর্যা করে থাকি যেন তারা সুন্দর ত্বকের অধিকারী হয়। 

তবে শিশুর ত্বক ফর্সা করার যত্ন আবার আলাদা বিষয়। একজন মানুষের ত্বকের রঙের ব্যাপারটি অনেকটাই বংশগত। তবে শিশু কালে ত্বকের যত্ন নিয়ে আধুনিক উপায়ে ত্বকের রং উজ্জ্বল করা যায়।

শিশুর ত্বক ফর্সা করার কয়েকটি উপায় নিচে বর্ণনা করা হলোঃ

শিশুদের ত্বকে গরম তেল মালিশ করলে চামড়া আরো মসৃণ ও উজ্জ্বল হয়। নিয়মিত গরম তেল মালিশ করলে ভালো ফল পাবেন।

হলুদ, দুধ এবং চন্দনের গুঁড়া মিশিয়ে বডি প্যাক বানিয়ে শিশুর ত্বকের জন্য ব্যবহার করতে পারেন। সপ্তাহে একবার আপনি এই বডি প্যাক ব্যাবহার করতে পারেন। 

শিশুদের ত্বক অনেক বেশি সংবেদনশীল হয়। এই বিষয়টি মাথায় রেখে হলুদ, দুধ, বেসন এবং গোলাপজল একসাথে মিশিয়ে একটি বিশেষ স্ক্রাব তৈরি করতে পারেন। এই জিনিসটি বাচ্চাদের ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে।

শিশুদের ত্বকের জন্য তৈরি বিভিন্ন ময়েশ্চারাইজার ক্রিম ব্যবহার করুন। বাজার থেকে আপনার সন্তানের জন্য সেরা ময়েশ্চারাইজার ক্রিম টি বেছে নিন। সবচেয়ে ভালো হয় চর্ম বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলে নিলে।

দুধের সর আর বাদাম তেল মেশানো উপাদান শিশুর ত্বক পরিচর্যার জন্য ব্যবহার করতে পারেন। এটি শিশুদের চর্মরোগ নিরাময়ে খুব কার্যকর।

বিভিন্ন ফলের রস যেমনঃ আঙ্গুর, আপেল, কমলালেবু ইত্যাদি শিশুদের খাওয়াতে পারেন। তবে তিন মাসে কম বয়সী শিশুদের খাওয়ানো বিপদজনক। 

শিশুকে গোসল করার সময় কুসুম পানিতে গোসল করাবেন। বেশি গরম পানিতে বা বেশি ঠাণ্ডা পানিতে গোসল করালে শিশুর ত্বকের ক্ষতি হতে পারে।

শিশুর ত্বক পরিচর্যা করার জন্য বেবি সোপ বা শিশুদের সাবান ব্যবহার করবেন না কারণ এর ফলে হিতে বিপরীত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। 

শিশুকে মাঝে মাঝে কিছু সময় জন্য রোদে নিয়ে যান। কারণ রোদে রয়েছে ভিটামিন-ডি যা সুস্থ ত্বকের জন্য খুবই জরুরী।

গোসল শেষে শিশুর গা মোছার দিকে খেয়াল রাখুন। শিশুর গায়ে অত্যধিক ঘষাঘষিতে ফুসকুড়ি যেন না বেরোয় আর জন্য নরম তোয়ালে ব্যবহার করুন।

উপরে পরামর্শগুলো মেনে চললে আপনার সন্তানের ত্বক ঝলমলে দেখাবে।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?