স্বপ্নদোষ হলে কি গোসল ফরজ

আমরা আমাদের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য এবং শরীর পরিষ্কার রাখার জন্য প্রায় প্রতিদিনই কিছু করে থাকি। আবার কিছু কিছু সময় গোসল করা হয় না। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ইসলামী শরীয়তের নিয়ম অনুযায়ী ফরজ গোসল করতে হয়।

অপবিত্র থেকে পবিত্র হওয়ার জন্য যে গোসল বাধ্যতামূলক করতেই হয় তাই ফরজ গোসল। যেমন, স্বপ্নদোষ হলে বাধ্যতামূলকভাবে ফরজ গোসল করতেই হবে।

ইসলামী শরীয়ত অনুযায়ী স্বপ্নদোষ হলে অবশ্যই অবশ্যই ফরজ গোসল করতেই হবে।

অনেক সময় ঘুম কিংবা জেগে থাকা অবস্থায় শারীরিক উত্তেজনায় স্বপ্নে বীর্যপাত হয়ে যায়। বিশেষ করে বয়সন্ধিকালের বেশি হয়ে থাকে। যাকে স্বপ্নদোষ বলা হয়। ঘুমের মধ্যে স্বপ্নদোষ হলে সেই ব্যক্তির জন্য গোসল করা অবশ্যই ফরজ। আর ফরজ গোসল না করা পর্যন্ত সেই ব্যক্তি অপবিত্র থাকবে।

অনেক সময় ঘুমের মধ্যে স্বপ্নদোষ হলেও টের পাওয়া যায় না তাই ঘুমের মধ্যে থাকা অবস্থায় উত্তেজনা অনুভব না হলেও গোসল করা অবশ্যই ফরজ। এর ফলে ঘুম থেকে উঠে যদি আপনি দেখতে পান আপনার কোথাও নাপাকি চিহ্ন লেগে রয়েছে বা দেখা যায় সে ক্ষেত্রেও ফরজ গোসল করতে হবে স্বপ্নদোষের কথা স্মরণ থাকুক বা না থাকুক। (হেদায়া)

তাই স্বপ্নদোষ হলে সাথে সাথে ফরজ গোসল করে নেয়া উত্তম। কারণ আপনি যদি এই নাপাক বা অপবিত্র অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তাহলে জাহান্নামী হবেন।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?