উপবৃত্তির টাকা তোলার নিয়ম

উপবৃত্তির টাকা তোলার নিয়ম

বর্তমানে আমাদের দেশে সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্র-ছাত্রীদের উপবৃত্তি দেওয়া হয়ে থাকে। যারা অভাবগ্রস্ত, টাকার জন্য পড়ালেখা করতে পারেন না সরকার থেকে তাদের তিন মাস অন্তর উপবৃত্তি দেওয়া হয়ে থাকে।

বর্তমানে আমাদের সকল উপবৃত্তির টাকা ছাত্র-ছাত্রীদের নগদ একাউন্টের মাধ্যমে প্রদান করা হয়ে থাকে। সরকারের লক্ষ্য ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার, আর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে সরকারের এক যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত।

যার ফলে আমাদের দেশে অনেক ছাত্র-ছাত্রী উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে। কোন এক সময় ছিল যখন উপবৃত্তির টাকা হাতে দেওয়া হত, এতে বিভিন্ন বড় থাকতো। কিন্তু বর্তমান যুগে ডিজিটাল যুগ, এখন উপবৃত্তির টাকা নগদ একাউন্টে দিয়ে থাকে যা কোন ঝামেলা ছাড়াই উত্তোলন করা যায়। 

চলুন আজকে আমরা শিখব কিভাবে উপবৃত্তির টাকা নগদ একাউন্ট থেকে তোলা যায়

নগদে উপবৃত্তির টাকা তোলার নিয়ম

আপনাকে সতর্কতার সাথে নগদ একাউন্ট থেকে টাকা তুলতে হবে। কারণ একটু ভুলের কারনে আপনার টাকা অন্য কারো কাছে চলে যেতে পারে।

উপবৃত্তির টাকা তোলার জন্য আপনার নিকটস্থ দোকানের নগদ এজেন্ট এর কাছে যেতে হবে। তারপর আপনাকে নগদ এজেন্টের নাম্বার এ টাকা ক্যাশ আউট করতে হবে। 

তবে মাঝেমধ্যে এজেন্ট আপনাকে  নাম্বারে সেন্ড মানি করতে বলতে পারে। তবে এতে ভয়ের কোন কারণ নেই কারণ এই পদ্ধতিতে তাদের একটু বেশি লাভ হয়। তাই পদ্ধতি যেটাই হোক আপনি সঠিক নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে আপনার হাতে টাকা পেলেই হল।

নগদ একাউন্ট থেকে টাকা তোলার জন্য আপনার ডায়াল অপশনে গিয়ে *১৬৭# ডায়াল করতে হবে। দেখবেন আপনার সামনে একটি মেনু ওপেন হয়েছে।

তারপর আপনি ক্যাশ আউট (Cash out) করলে ১ নাম্বার এবং সেন্ড মানি (Send Money) করলে ২ নাম্বার সিলেক্ট করে সেন্ড অপশনে ক্লিক করবেন।

তবে আপনি নিচের ছবির মত আপনার এজেন্টের নাম্বার বসিয়ে আবার সেন্ড এ ক্লিক করবেন 

তারপর আপনি যত টাকা ক্যাশ আউট করবেন তত টাকা লিখে আবারো সেন্ড অপশনে ক্লিক করবেন।

এরপর আপনার একাউন্টের পিন নাম্বারটি দিয়ে সেন্ড অপশনে ক্লিক করে কনফার্ম করলেই আপনার এজেন্টের একাউন্টে টাকা চলে যাবে। তার একাউন্টে টাকা যাওয়ার পর চেক করে আপনি টাকা হাতে বুঝে নেবেন।   

সব সময় একটু সাবধানতা অবলম্বন করেন। তাহলে এখন অনেক প্রতারক বের হয়েছে যারা আপনাকে বিভিন্ন ধোকায় ফেলে আপনার নগদ একাউন্ট থেকে টাকা চুরি করে নেওয়ার মতো ফন্দি আটে। 

তাই কেউ কখনো আপনার নগদ একাউন্টের পিন নাম্বার চাইলে সেটা কাউকে বলবেন না। অনেক সময় বলে আমি নগদ কোম্পানি থেকে বলছি আমাকে আপনার পিন নাম্বারটি দিন। 

কিন্তু নগদ কাস্টমার কেয়ার কখনো আপনার পিন নাম্বার জানতে চাইবে না। তখন মনে করবেন সেটা প্রতারক ছিলো।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?