ডিজিটাল কনটেন্ট কত প্রকার

ডিজিটাল মাধ্যমে প্রকাশিত যে কোন ছবি, শব্দ, তথ্য কিংবা ভিডিও সবই ডিজিটাল কনটেন্ট।

ডিজিটাল কনটেন্ট চার প্রকার

  • টেক্সট বা লিখিত কনটেন্ট
  • ছবি
  • শব্দ বা অডিও
  • ভিডিও এনিমেশন 

টেক্সট বা লিখিত কনটেন্টঃ

যে সকল তথ্য টেক্সট বা লেখা লিখির মাধ্যমে মানুষের কাছে পৌঁছে দেই বা টেক্সটের মাধ্যমে নিবন্ধন ব্লগ পোস্ট, পণ্য বা সেবার তালিকা, সংবাদপত্র ইত্যাদি যত প্রকার লিখালিখি রয়েছে এবং আমরা সেই টেক্সট বা লেখাগুলো পড়ি সেগুলোই মূলত টেক্সট বা লিখিত কনটেন্ট।

ছবিঃ 

যেকোনো ধরনের ছবি, ক্যামেরায় তোলা ছবি বা হাতে আঁকা ছবি, কম্পিউটারে তৈরি সকল ধরনের ছবি। 

ছবি কনটেন্টের আওতাভুক্ত। যে সকল ছবির মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন তথ্য পেয়ে থাকি সেগুলো মূলত ছবি কনটেন্ট।

শব্দ বা অডিওঃ 

শব্দ বা অডিও টাইপের সকল কনটেন্ট ই এই কনটেন্ট শ্রেণীর আওতাভুক্ত। আমরা  শব্দ বা অডিও মাধ্যমে যে তথ্য পেয়ে থাকি বা দিয়ে থাকি সেগুলি শব্দ অডিও কনটেন্ট।

ভিডিও ও এনিমেশনঃ 

বর্তমানে আমাদের কাছে মোবাইল ক্যামেরা থাকার কারণে ভিডিও কনটেন্ট এর পরিমাণ বেড়েই চলেছে। ইউটিউব বা ফেসবুক ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম গুলোর মধ্যে ভিডিও এনিমেশনের কনটেন্ট দিন দিন বেড়েই চলেছে। 

বর্তমানে ভিডিও কনটেন্ট এর চাহিদা বেশি এবং এটি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাছাড়া আমরা কিছু কিছু ভিডিও লাইভ দেখতে পাই যেগুলো ভিডিও কনটেন্ট এর অন্তর্ভুক্ত।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?