মেয়ে পটানোর সহজ উপায়

মেয়ে পটানোর সহজ উপায়

নারী-পুরুষ সবাই জীবনের কোন একটা সময়ে একাকীত্ব অনুভব করে। নারী-পুরুষ উভয়ের একজন আরেকজনের সঙ্গ চায়। ভালোবাসা পবিত্র বন্ধনে একে অপরকে বাঁধতে চায়। 

বলা হয়ে থাকে একজন পুরুষের সফলতার পিছনে নারীর অবদান রয়েছে। কিন্তু যদি আপনার জীবনে নারী না থাকে তাহলে সফল হবেন কি করে? 

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা মেয়েদেরকে কিভাবে নিজের দিকে আকর্ষিত করতে হয় সেটা জানে না। আবার অনেকেই এমন যে, একটা মেয়েকে পছন্দ করে কিন্তু তাকে সে পটাতে পারে না। 

এই সমস্যাটি বেশিরভাগ ছেলেদের ক্ষেত্রে হয়ে থাকে। অনেক চেষ্টার পরেও দেখা যায় মেয়ে পটাতে পারছে না। চিন্তার কোনো কারণ নাই এই সমস্যা সমাধানের জন্য আমরা আছি। চলুন দেখে নেয়া যাক মেয়ে পটানোর সহজ কিছু টিপস

অনেক মেয়েকেই প্রথম দেখায় ভালো লাগে বা মনে ধরে। কিন্তু তা বলতে পারিনা। মনে মনে নিজেকে নিজে প্রশ্ন করি যে মেয়েটিকে আসলে আমার ডাকে সাড়া দিবে? বা সে কি পটবে? 

এই প্রশ্ন উত্তর পেয়ে যাবেন আমাদের আমাদের পুরো লেখাটি পড়লে। আমরা যে উপায় গুলো বলবো সেগুলো ঠিকমতো ফলো করবেন তাহলেই বড়শিতে মাছ আটকাবে। আর কথা না বাড়িয়ে চলুন দেখে নেই মেয়ে পটানোর সহজ উপায় গুলো।

কোন মেয়েকে পছন্দ হওয়ার পর অবশ্যই সেই মেয়েটি সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজখবর নিবেন। মেয়েটির পূর্বে কারো সাথে সম্পর্ক ছিল কিনা বা এখনও কোনো সম্পর্ক আছে কিনা এসব বিষয়। 

কোন মেয়েকে পটানোর আগে ভাবতে হবে সেই মেয়েটিকে কিভাবে আপনার প্রতি আকৃষ্ট করা যায়। যদি আপনার প্রতি মেয়েটি আকৃষ্ট হয় তাহলে পটানো সহজ হবে। এজন্য মেয়েটির সামনে সুন্দরভাবে গোছালো অবস্থায় থাকতে হবে।

যে মেয়েটিকে আপনি পছন্দ করবেন তার কাছাকাছি থাকার চেষ্টা করবেন যেন সে আপনার আচার আচরণ দেখে বুঝতে পারে আপনি তাকে পছন্দ করেন। যদি আপনি সরাসরি মেয়েটাকে প্রপোজ করতে পারেন তাহলে করবেন। 

আর যদি আপনার পক্ষে এটা সম্ভব না হয় বা সংকোচবোধ করেন তাহলে অবশ্যই মেয়ের বান্ধবী বা আপনার পরিচিত কাউকে দিয়ে প্রপোজ করাতে পারেন। 

মনে রাখবেন কোন মেয়েকে যখন কেউ প্রপোজ করে তখন তার সম্মতি থাকলেও প্রথমবার হ্যাঁ বলবে না। সে না বললে তার প্রতি রাগ বা ক্ষোভ না দেখিয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাবেন। 

আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে। কোন কাজে সুফল পাওয়ার জন্য অবশ্যই ধৈর্য ধরতে হবে। অনেক চেষ্টার পরও যদি দেখেন সে পটতাছে না তাহলে সরে যাবেন। মনে রাখবেন মানুষ সবসময় সব জায়গায় সফল হয় না। 

প্রথম দেখায় কোন মেয়ের সাথে বেশি মিশতে বা খোলাখুলি হতে যাবেন না। প্রয়োজন ছাড়া কোন কথা বলবেন না। প্রয়োজনের তুলনায় বেশি কথা বললে মেয়েটি আপনাকে বাচাল ভাবতে পারে। 

মেয়েরা বেশি কথা বলা পছন্দ করে না। বেশিরভাগ সময় নিজের ভাবমূর্তি ধরে রেখে শ্রোতা হিসেবে কথা শুনবেন। যদি দেখেন মেয়েটি কিছুই না বলছে না, চুপ করে আছে তাহলে আপনি আগে নিজ থেকে কথা বলা শুরু করবেন। নিজের ভাষায় সুন্দর করে কথা বলবেন।

মেয়েদের সাথে কথা বলার সময় কথার মাঝখান দিয়ে মেয়েদের প্রশংসা করবেন। মেয়েদের নিজের প্রশংসা শুনতে ভালো লাগে। তার চোখ, চুল, হাসি এগুলো নিয়ে প্রশংসা করুন।

তবে মাথায় রাখবেন প্রশংসাটি যেন হয় যুক্তিযুক্ত। মেয়ের মধ্যে যেই গুন আছে তা নিয়ে প্রশংসা করবেন মিথ্যা প্রশংসা করার দরকার নেই।

একজন মানুষের পোশাক দেখে তার স্ট্যাটাস সম্পর্কে অনেকটা ধারণা পাওয়া যায়। এরকম পোশাক পরবেন যে পোশাক আভিজাত্য ও রুচিসম্মত। একদম ছেঁড়া ফাটা জামা পড়া যাবে না। ভালো সুগন্ধিযুক্ত পারফিউম মেখে যাবেন। 

মেয়েটিকে কিছু উপহার দিন। উপহারের জন্য বেস্ট হচ্ছে ফুল। আপনি চাইলে একগুচ্ছ গোলাপ উপহার দিতে পারেন।

মেয়েটির সাথে আপনার জীবনে ঘটা সুখ, দুঃখ, আনন্দ ভাগ করে নিন। মেয়েটিকে বোঝান যে, তার বিপদে আপদে সবসময় সর্বদা আপনি তার পাশে আছেন। আপনাকে সেই মেয়ের প্রতি একটু যত্নশীল হতে হবে। 

আপনার প্রিয় মানুষটির হ্যাঁ তে হ্যাঁ বলুন ও না তে না বলুন। সব সময় তারা যেটা সঠিক প্রমাণ করার চেষ্টা করবে সেটাকে মেনে নিবেন তর্কে-বিতর্কে যাবেন না।

অবশ্যই আপনার প্রিয় মানুষটিকে সম্মান করতে হবে। তার মতামতের গুরুত্ব দিন। যারা মেয়েদের এ রকম সম্মান করে তাদের প্রতি মেয়েরা দ্রুত আকৃষ্ট হয়।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?