লুডু খেলা কি হারাম

আগে আপনার জানতে হবে হারাম মানে কি? হারাম শব্দের অর্থ নিষিদ্ধ। ইসলামিক কিছু খেলাকে নির্দিষ্ট করে হারাম বলা হয়েছে। তার মধ্যে একটি খেলা হচ্ছে লুডু। 

যেসব খেলায় বুদ্ধি ব্যয় হয়, সময় নষ্ট হয় কিন্তু শরীরের ব্যায়াম হয় না সেই ধরনের খেলাকে হারাম বলা হয়েছে। লুডু এমন একটি খেলা যেই খেলায় বুদ্ধি খরচ হয়, সময়ও নষ্ট এবং শরীরের কোন ব্যায়াম হয় না। 

সুতরাং বলা যায় লুডু একটি হারাম খেলা। এছাড়া যে ধরনের কাজ করলে আল্লাহর স্মরণ থেকে মানুষকে দূরে রাখে সেগুলো হারাম। এ দিক থেকে বিবেচনা করলেও লুডু খেলা হারাম।

রাসুল (সাঃ) বলেন, যে ব্যক্তি দাবা/নারদ খেলে সে যেন তাঁর হাতকে শূকরের গোশত ও রক্ত দিয়ে রাঙালো। (মুসলিমঃ ২২৬০)

এই হাদীসে ‘নারদ’ শব্দ ধারা দাবা জাতীয় সকল খেলাকে হারাম বা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। 

আপনি যদি লুডু খেলা খেলেন তাহলে আপনি শূকরের গোশত ও রক্ত দিয়ে হাত রাঙালেন।

লুডু জাতীয় আরো কিছু খেলা আছে যেমনঃ দাবা, তাস, ক্যারাম ইত্যাদি যেগুলো খেলা হারাম। এছাড়া মোবাইল বা কম্পিউটারে গেমস খেলাও হারাম।

নিজের আত্মরক্ষা প্রয়োজনে তীর নিক্ষেপ, বর্ষা চালানো এবং এগুলোর প্রতিযোগিতা ইসলাম সমর্থন করে। এছাড়া দৌড় প্রতিযোগিতাকে ইসলাম সমর্থন করে। প্রিয় নবী হযরত  মুহাম্মদ (সাঃ) বলেন, ঘোড়া অথবা তীর নিক্ষেপ অথবা উটের প্রতিযোগিতা ব্যতীত অন্যকিছুর প্রতিযোগিতা ইসলামে নেই।

ইসলামিক বিষয়গুলো সম্পর্কে আরো গভীরভাবে জানতে কোন বিজ্ঞ আলেমের সাথে আলোচনা করুন।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?