লাইব্রেরিয়ান নিয়োগ যোগ্যতা

লাইব্রেরী হলো একটি জাতির উন্নতি ও বিকাশের মানদন্ড। বিজ্ঞান, ইতিহাস, সাহিত্য, দর্শন ও ধর্ম ইত্যাদি সব ধরনের বই পাওয়া যায় লাইব্রেরিতে। 

লাইব্রেরিতে বই সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বিতরণ করার জন্য জনবল প্রয়োজন হয়। যারা এই কাজকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করে তাদেরকে লাইব্রেরিয়ান বলে। 

বিভিন্ন ধরনের সংস্থা এবং স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এ পেশায় কাজ করার সুযোগ রয়েছে। সরকারি ও বেসরকারি উভয় প্রতিষ্ঠানেই একজন লাইব্রেরিয়ান হিসেবে কাজ করতে পারবেন। একজন লাইব্রেরিয়ান হতে হলে কি কি দরকার হবে সে সম্পর্কে আজকে আমরা জানাবো। 

লাইব্রেরিয়ান হতে হলে আপনার মধ্যে কোন কোন যোগ্যতা থাকতে হবে

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ স্বীকৃত কোন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠান থেকে ইনফরমেশন সায়েন্স ও লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রিধারী হতে হবে।

বয়সঃ কমপক্ষে ২৪ ( প্রতিষ্ঠান সাপেক্ষে বয়সের সীমা দেওয়া থাকে )

অভিজ্ঞতাঃ যেকোনো প্রতিষ্ঠানে ২ বা ৩ বছর কাজ করা অভিজ্ঞদের প্রাধান্য দেওয়া হয়।

একজন লাইব্রেরিয়ান কি কি কাজ করে থাকে

বিভিন্ন ধরনের বই সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করা।

বইয়ের তালিকা বানানো এবং হালনাগাদ করা।

পাঠকের চাহিদা মাত্রই তাদের প্রয়োজনীয় বই বা পত্রিকা সংগ্রহ করে দেয়া।

লাইব্রেরির জন্য বার্ষিক বাজেট বানানো এবং কর্মশালার আয়োজন করা।

পাঠকেরা লাইব্রেরীতে বই কিভাবে ব্যবহার করছে সে সম্পর্কে অবগত হওয়া।

লাইব্রেরিয়ান এর মাসিক বেতন

ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ভিন্ন ভিন্ন বেতন দেওয়া হয়। সাধারণত লাইব্রেরি সহকারীর মাসিক বেতন গড়ে ২০ হাজার টাকায় নিয়োগ দেয়া হয়। কারিগরি দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতার সাথে সাথে বেতন বৃদ্ধি পেতে থাকে। 

আমাদের দেশে লাইব্রেরির সংখ্যা এখনো কম। যত লাইব্রেরি কম তাই লাইব্রেরিয়ানের সংখ্যাও কম। বর্তমানে শুধু কাগজের বইয়ের মধ্যেই লাইব্রেরি সীমাবদ্ধ নয় অনেক লাইব্রেরিই ডিজিটালাইজড করা হয়েছে।

আর এসব লাইব্রেরি পরিচালনার জন্য দক্ষ লাইব্রেরিয়ানের প্রয়োজন। সুতরাং জ্ঞান অর্জনের পাশাপাশি লাইব্রেরিয়ান পেশার মাধ্যমে আপনি আয় করতে পারবেন।

বিডিপপুলারে আপনাকে স্বাগতম!

আপনার লেখা বিডিপপুলারে পাবলিশ করবেন কিভাবে?